ইন্টারনেটে ধীর গতিতে ভোগান্তি, বাড়তে পারে আরো ১ দিন

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: রক্ষণাবেক্ষণের জন্য প্রথম সাবমেরিন ক্যাবল (এসএমডব্লিউ-৪) বিচ্ছিন্ন থাকায় দ্বিতীয় দিনে বেশি ভোগান্তিতে পড়েছেন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা। এতে অনলাইনভিত্তিক কাজকর্মে বিঘ্ন ঘটেছে গ্রাহকদের।

কক্সবাজারের প্রথম সাবমেরিন ক্যাবলের (এসএমডব্লিউ-৪) একিট রিপিটার পরিবর্তনের জন্য ২৪ অক্টোবর রাত সাড়ে ১২টা থেকে বিচ্ছিন্ন আছে। এই সময়ে দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল এবং আমদানি-নির্ভর ব্যান্ডউইডথের মাধ্যমে সেবা দেওয়া হচ্ছে।

অন্যদিকে, ২৪ অক্টোবর থেকে ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত রক্ষণাবেক্ষণের জন্য প্রথম সাবমেরিন ক্যাবল বিচ্ছিন্ন রাখার হলেও এই সময় আরো বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে সেবা বন্ধ করে দেওয়ার প্রথম দিন মঙ্গলবার (২৪ অক্টোবর) খুব বেশি সমস্যায় পড়েননি ব্যবহারকারীরা। তবে বুধবার (২৫ অক্টোবর) ৩৭তম বিসিএসের ফল প্রকাশের পর অনেকেই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতেই পারেননি।

প্রথম সাবমেরিন ক্যাবলের কক্সবাজারের কলাতলী ল্যান্ডিং স্টেশন থেকে ১০৫ কিলোমিটার দূরে গভীর সমুদ্রে দ্বিতীয় রিপিটারটিতে ফল্ট দেখা দেওয়ায় সেটি পরিবর্তনের জন্য সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়।

কক্সবাজারের কলাতলী ল্যান্ডিং স্টেশনের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) সাখাওয়াত হোসেন বুধবার সন্ধ্যায় বলেন, আজ রিপিটার পরিবর্তনের কথা থাকলেও সম্ভব হয়নি।

তিনি জানান, বালির নিচে রিপিটারটি পড়ে আছে। আজকেই জাহাজে তুলে রিপিটার পরিবর্তনের কথা ছিল। কিন্তু হয়নি। আজকের মধ্যে রিপিটার তুলতে না পারলে সময় আরো বাড়তে পারে।

তবে ইন্টারনেট সেবায় দ্বিতীয় দিন খুব বেশি সমস্যা হচ্ছে না বলে দাবি করেন ডিজিএম সাখাওয়াত।

শেয়ার করুন