মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় মানবিক সমাজ বিনির্মাণে নাট্য আন্দোলনের বিকল্প নেই

সিলেটের সকাল ডেস্ক ।। “মানবের তরে মাটির পৃথিবী, দানবের তরে নয়” এই শ্লোগানে সিলেটের সাংস্কৃতিক আন্দোলনের অন্যতম চালিকাশক্তি সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেট গৌরবের ৩৪ বছর পূর্তি উদযাপন করলো। এ উপলক্ষ্যে বুধবার রিকাবীবাজার কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিকাল সাড়ে ৪টায় অডিটোরিয়ামের মুক্তমঞ্চে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন সিলেটের জেলা প্রশাসক মো. রাহাত আনোয়ার।

সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের সভাপতি মিশফাক আহমদ চৌধুরী মিশুর সভাপতিত্বে এবং পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্তের পরিচালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- নাট্য পরিষদের প্রাক্তন প্রধান পরিচালক ব্যরিস্টার মোঃ আরশ আলী, পরিষদের প্রধান পরিচালক অরিন্দম দত্ত চন্দন, ইমজা সিলেট এর সভাপতি আল-আজাদ, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবির, বাংলাদেশ প্রতিদিনের ব্যুরো প্রধান শাহ্ দিদার আলম নবেল।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে মুক্তমঞ্চ চত্ত্বর থেকে এক আনন্দ শোভাযাত্রা সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে মুক্তমঞ্চে থিয়েটার বাংলা, থিয়েটার মুরারিঁচাদ পথ নাটক এবং সন্ধ্যায় অডিটোরিয়াম মূল মঞ্চে পাঠাভিনয়ে অংশ নেন প্রবীন নাট্যজন ও মুক্তযোদ্ধা নিজাম উদ্দীন লস্কর, ভবতোষ রায় বর্মণ, নাট্যায়ন সিলেট, নাট্যালোক সিলেট, কথাকলি সিলেট, দর্পণ থিয়েটার সিলেট, নাট্যমঞ্চ সিলেট, দিক থিয়েটার (শাবিপ্রবি), থিয়েটার সিলেট।

সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় পাঠাভিনয় উৎসবে প্রধান অতিথি ছিলেন সিলেট সিটি কর্পোরেশন এর মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন এক বৈরী সময়ে সম্মিলিত নাট্য পরিষদ যাত্রা শুরু করে। বহু সংগ্রাম, ঐতিহ্যের সাথে নাট্য পরিষদ ছিলো অঙ্গাঅঙ্গিভাবে জড়িত। বক্তারা বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নাট্য পরিষদ সংগ্রাম করে আসছেএ তারা মানবিক সমাজ বির্নিমানে নাট্য আন্দোলনকে এগিয়ে নিয়ে সম্মিলিত নাট্য পরিষদের কার্যক্রমের প্রশংসা করে আরো সামনে এগিয়ে নেওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

শেয়ার করুন