কেমুসাস’র প্রতিষ্ঠাতা এ জেড আব্দুল্লাহ ছিলেন বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী

আলোচনা সভায় রাগীব হোসেন চৌধুরী


কেমুসাসের আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখছেন কবি রাগীব হোসেন চৌধুরী-সিলেটের সকাল

সিলেটের সকাল রিপোর্ট ॥কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাবেক সভাপতি, বিশিষ্ট কবি ও সংগঠক রাগিব হোসেন চৌধুরী বলেছেন, এ. জেড আব্দুল্লাহ বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী ছিলেন। তার চিন্তায় দর্শন ছিলো, সমাজ উন্নয়নে তার ভূমিকা স্মরণযোগ্য। তার বর্ণাঢ্য জীবন অনুসরণযোগ্য। কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের প্রতিষ্ঠার ইতিহাস তুলে ধরে তিনি বলেন, মুফতি বাড়িতে একজন পীর আসতেন। তিনি একদিন আলোচনার প্রেক্ষিতে দেওয়ান মোহাম্মদ আজরফ ও মুহাম্মদ নূরুল হককে বলেন, মুসলিম সাহিত্য সংসদ প্রতিষ্ঠা করতে পারবে? তারা দু’জনে এ. জেড আব্দুল্লাহ’র সঙ্গে আলোচনা করেন বিষয়টি। এ তিনজনের একান্ত প্রচেষ্টায় সংসদ প্রতিষ্ঠা পায়।
কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক এ. জেড আব্দুল্লাহর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে সাহিত্য সংসদ আয়োজিত আলোচনা সভা ও ৯৬৫ তম সাহিত্য আসরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
সংসদের সাহিত্য ও সংস্কৃতি সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল মুকিত অপির সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সংসদের সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মাহমুদ রাজা চৌধুরী বলেন, এ. জেড আব্দুল্লাহ সিলেট লাইব্রেরী আন্দোলনের প্রবর্তক। তার দেওয়া ১৯টি বই দিয়ে সাহিত্য সংসদের যাত্রা শুরু হয়। এই গুণী মানুষ আমাদের কাছে সব সময়ই স্মরণীয়।
সংসদের সহ-সভাপতি মুহাম্মদ বশিরুদ্দিন বলেন- তিনি ছিলেন একজন আলোকিত মানুষ। তাকে বাদ দিয়ে সিলেটের ইতিহাস পরিপূর্ণ হবে না। সহসভাপতি সেলিম আউয়াল বলেন, এ. জেড আব্দুল্লাহ সাহিত্য সংসদের পাল তুলেছিলেন। আর মুহম্মদ নূরুল হক এর হাল ধরেছিলেন।
সভায় মূল প্রবন্ধে লেখক প্রাবন্ধিক সৈয়দ মোহাম্মদ তাহের বলেন, কথা শিল্পী, ভাষাসৈনিক, সংগঠক, রাজনীতিবিদ, সমাজসেবী হিসেবে এ. জেড আব্দুল্লাহ সিলেটের মানুষের হৃদয়ে আসন করে গেছেন। একজন মননশীল লেখক হিসেবে তিনি ছিলেন যশস্বী।
সভায় আলোচনায় অংশ নেন সংসদের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক মানিক, কার্যকরী পরিষদের সদস্য মোঃ রুহুল ফারুক। তাসলিমা খানম বীথির পরিচালনায় সাহিত্য আসরে লেখাপাঠে অংশ নেন- ঔপন্যাসিক সিরাজুল হক, মামুন সুলতান, মোঃ রফিকুল ইসলাম, কামাল আহমদ, বাহা উদ্দিন বাহার, সৈয়দ মুক্তদা হামিদ, মিনহাজ ফয়সল, মাহমুদ শিকদার, আকরাম সাবিত, শাহানারা বেগম ইমা, মুয়াজ বিন এনাম, রায়হান কবির, জুনায়েদুর রহমান, আলাল আহমদ, সাইফুল্লাহ, হেলাল উদ্দিন দাদন, সৈয়দ বেলালুর রব বেলাল, আলী বিন ইউসুফ । অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন হাফিজ লোকমান আহমদ।

শেয়ার করুন