কক্সবাজারে ১৩কোটি টাকার ইয়াবাসহ দুই রোহিঙ্গা আটক

সিলেটের সকাল ডেস্ক।। কক্সবাজারের টেকনাফের দমদমিয়া থেকে ১৩ কোটি ৭ লাখ ৪১ হাজার ৫০০ টাকা মূল্যের ইয়াবাসহ দুই রোহিঙ্গাকে আটক করেছে বিজিবি।

রোববার ভোর চারটার দিকে স্থানীয় নেচারপার্ক এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ৪ লাখ ৩৫ হাজার ৮০৫ পিস ইয়াবা ও একটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

ইয়াবাসহ আটক রোহিঙ্গারা হলেন- মিয়ানমারের মংডু মাঙ্গালার মৃত সিরাজুল মোস্তফার ছেলে মো. কামাল আহমদ (৪৫) ও বাসেত আলীর ছেলে মো. ইলিয়াস (৩০)।

এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে টেকনাফ মডেল থানায় পৃথক ২টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ইয়াবা ও মোবাইল ফোনসহ আটকদের টেকনাফ মডেল থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

টেকনাফ-২ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল এসএম আরিফুল ইসলাম জানান, বিশ্বস্ত গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে ইয়াবার একটি চালান হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের নেচারপার্ক বরাবর নাফ নদীর কিনারা দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে জেনে দমদমিয়া বিওপির হাবিলদার মো. লুৎফর রহমানের নেতৃত্বে একটি টহল দল ওৎ পেতে থাকে।

ভোর চারটার দিকে মিয়ানমার থেকে নাফ নদীর শূন্য লাইন অতিক্রম করে একটি নৌকা কিনারায় এসে ভেড়ে। ২টি বস্তা নৌকা থেকে নামানোর সঙ্গে সঙ্গে সন্দেহ হলে টহল দল তাদের ধাওয়া করে। এসময় ইয়াবা পাচারকারিরা বস্তা ফেলে পালানোর চেষ্টা করলে টহলদল ২ পাচারকারিকে ইয়াবাসহ আটক করে। এসময় আরো ৬ জন দ্রুত গতিতে নৌকায় করে মিয়ানমারের ভেতর চলে যায়।

পরবর্তীতে টহল দল জব্দ করা ২টি বস্তা খুলে ৪ লাখ ৩৫ হাজার ৮০৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার করে। যার মূল্য ১৩ কোটি ৭ লাখ ৪১ হাজার ৫০০ টাকা।

নিজ দখলে ইয়াবা রাখার অপরাধে এবং অবৈধভাবে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের দায়ে আটক ২ রোহিঙ্গার বিরুদ্ধে টেকনাফ মডেল থানায় পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আটকদের জব্দকৃত ইয়াবা ও মোবাইল ফোনসহ টেকনাফ মডেল থানায় সোপর্দ করা হয়েছে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।

শেয়ার করুন