কাউন্সিলর বাবলীর স্বামীসহ ৪ জনের সাজা

প্রতীকী ছবি

কোর্ট রিপোর্টার ।। জায়গা দখল, হামলা ও লুটপাটের মামলায় আজ বুধবার  সিলেট সিটি করপোরেশনের মহিলা কাউন্সিলর দিবা রানী বাবলির স্বামীসহ ৪জনকে ১ বছরের সশ্রম সাজা দিয়েছেন আদালত।

সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (১ম) আদালতের বিচারক মামুনুর রহমান ছিদ্দীকি এ রায় ঘোষণা দেন।   আসামীদের উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করা হয়।

সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলো- সিলেট নগরীর মৌবন যতরপুর ১৫ নং বাসার মৃত সুদির চন্দ্র দাসের ছেলে সত্যব্রত দাস রিপন, মৃত সুরেশ চন্দ্র দে’র ছেলে কাউন্সিলর দিবা রানীর স্বামী মনিন্দ্র কুমার দে, লামাবাজার ছায়াতরু ১৬/এ বাসার মৃত নিরঞ্জন ঘোষের ছেলে শেখর ঘোষ ও চালিবন্দর এলাকার ৪১/২ নং বাসার সীতিন্দ্র মহন রায়ের ছেলে দেবব্রত রায় দিপন।

আদালতের এপিপি অ্যাডভোকেট রাশেদা চৌধুরী জানান,  ‘সিলেট সিটি করপোরেশনের মহিলা কাউন্সিলর দিবা রানী বাবলির স্বামীসহ ৪জনকে ১ বছরের সশ্রম সাজা দেন আদালত। আদালত ৪৪৮ ধারায় ৬মাস ও ৩৫৪ ধারায় আরও ৬মাসের সশ্রম সাজা দিয়েছেন।’

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালে জায়গা দখল, লুটপাট, হামলা ও শ্লীতাহানির ঘটনায় সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (১ম) আদালতে মামলা দায়ের করেন মৃত আইনজীবী পানেশ চন্দ্র চৌধুরীর মেয়ে সিলেট নগরীর যতরপুর এলাকার নবপুষ্প-২৯ নং বাসার বাসিন্দা ডলি রানী চৌধুরী।

ওই বছরের ১ আগস্ট রাত ১টায় রিপনসহ কয়েক অজ্ঞানামা আসামী ডলি রানীর বাসা দখল করার জন্য হামলা চালায়। এসময় তারা তার শাড়ি ধরে শ্লীতাহানি ঘটায়।

হামলাকারীরা পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের ওপর হামলা চালিয়ে  তার বসতঘরে প্রায় ৫৫ হাজার টাকার মালামাল ভাংচুর করে বলে তিনি মামলায় উল্লেখ করা হয়। মামলায় পাঁচ জন স্বাক্ষীর মধ্যে সবার স্বাক্ষী আদালতে গ্রহণ করা হয়। এ মামলার অভিযোগ গঠন হয় ২০১৬ সালের ১৬ অক্টোবর।

 

শেয়ার করুন