ফ্রি Wi-Fi ব্যবহারে বিপদ হতে পারে

downloadসিলেটের সকাল ডেস্ক : রাস্তা থেকে কফিশপ, ট্রেন স্টেশন থেকে হালফিলের মাল্টিপ্লেক্স। যেখানেই যাবেন, খুঁজতে শুরু করবেন। পাইলেও পাইতে পারেন সেই অমূল্য রতন। একবার শুধু কানেক্ট করার অপেক্ষা। হয়ে গেলেই কেল্লাফতে। একের পর এক অ্যাপ ডাউনলোড, ভিডিও স্ট্রিমিং আর কে রুখতে পারে? রুখতে পারে। শুধু রুখতেই পারে না, ফ্রি Wi-Fi-এর চক্করে আপনিই আপনার বিপদ ডেকে আনতে পারেন।

কেমন করে? বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ফ্রি Wi-Fi বা হটস্পট হল হ্যাকারদের স্বর্গরাজ্য। এর মাধ্যমেই আপনার ব্যক্তিগত তথ্য যেমন পাসওয়ার্ড, ছবি ইত্যাদি পৌঁছে যেতে পারে দুষ্কৃতিকারীদের হাতে। আর তা কাজে লাগিয়ে তারা আপনার কী কী ক্ষতি করতে পারে, আপনি কল্পনাও করতে পারবেন না।

২০১৬ সালে আমেরিকার রিপাবলিকান অ্যান্ড ডেমোক্র্যাটিক ন্যাশনাল কনভেনশন একটি সমীক্ষা করেছিল। যাতে কিছু কোম্পানির তরফে ফ্রি Wi-Fi সরবরাহ করা হয়েছিল। তাতে দেখা গিয়েছিল প্রায় ৭০ শতাংশ মানুষই নিরাপদটি ছেড়ে বিপজ্জনক Wi-Fi পরিসেবাটি বেছে ইন্টারনেট করছেন।

আর দেখা গিয়েছে, যখনই একটি প্ল্যাটফর্ম থেকে নেটওয়ার্ক অনেক বেশি শেয়ার হতে থাকে। তখন ওই প্ল্যাটফর্ম ও নেটওয়ার্কগুলির মধ্যে বেশ কিছু চ্যানেলের সৃষ্টি হয়। এই চ্যানেলগুলির মাধ্যমেই হ্যাকাররা আপনার নেটওয়ার্কের প্রবেশ করতে পারে। আপনার ইন্টারনেট অনায়াসেই চলে আসতে পারে দুষ্কৃতিকারীদের আওতায়।

আর হালফিলের ডিজিটালের যুগে অনলাইন লেনদেন করে ফেলাটাও কোনও বড় ব্যাপার নয়। তাই Wi-Fi-এর ফাঁদে হামেশা পা না দিয়ে অনলাইনে ব্যক্তিগত কাজের ক্ষেত্রে মোবাইল ডেটা ব্যবহার করারই পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। -সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন।

শেয়ার করুন