‘বাইরের কেউ যেন গণমাধ্যমে হাত দিতে না পারে’

President-Abdul-Hamidসিলেটের সকাল ডেস্ক : রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, ”সেলফ সেন্সসরশিপকে কাজে লাগাতে হবে। বাইরের কেউ যাতে গণমাধ্যমের ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করতে না পারে সে ব্যাপারে সজাগ থাকতে হবে।”

শুক্রবার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে ইংরেজি দৈনিক ‘ডেইলি স্টার’ এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি আরও বলেন, গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখতেও গণমাধ্যমকে কাজ করতে হবে। সকল গণমাধ্যম বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ করে জাতির উন্নয়নে সর্বদা সচেষ্ট থাকবে। দেশের গণতন্ত্র ও সাংবিধানিক ধারা অব্যাহত রাখতে তারা আরও তৎপর হবে।”

গণমাধ্যমকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, গণমাধ্যমে সরকার, এমনকি রাষ্ট্রপতির সমালোচনা করতে কোনো বাধা নেই। কিন্তু তা যেন তথ্যভিত্তিক হয়। কোনোভাবেই যেন একপেশে না হয়। গঠনমূলক সমালোচনা সরকার পরিচালনা ও জাতিগঠনে সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে বলে মত প্রকাশ করেন রাষ্ট্রপতি।

ধর্মের অপব্যবহার রোধেও সংবাদ মাধ্যমকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে আবদুল হামিদ বলেন, “ধর্মকে ব্যবহার করে কেউ যাতে অশুভ কিছু করতে না পারে সে ব্যাপারেও গণমাধ্যমকে ভূমিকা নিতে হবে। সংবাদপত্রসহ সকল গণমাধ্যমকে ঐক্যবদ্ধভাবে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড মোকাবেলায় কাজ করতে হবে।”

অনুষ্ঠানে মিডিয়া ওয়ার্ল্ডের চেয়ারপারসন রোকেয়া আফজাল রহমানের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান, ভারতের বিশিষ্ট সাংবাদিক কুলদীপ নায়ার, থাইল্যান্ডের দ্য নেশন মাল্টিমিডিয়া গ্রুপের সম্পাদনা ও ব্যবস্থাপনা পর্ষদের প্রধান উপদেষ্টা সুথিচাই সাই ইয়ুন প্রমুখ।

শেয়ার করুন