ধর্মপাশা আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপে ধাওয়া ধাওয়ি ॥ ১৪৪ ধারা জারি

indexসুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের ধর্মপাশায় উপজেলা আওয়ামীলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার দুপুর ২টায় এই ঘটনা ঘটে।  এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করেছে উপজেলা প্রশাসন।
দলীয় সূত্রে জানা যায়, ২ ফেব্রুয়ারি জেলার বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় স্থানীয় আওয়ামীলীগের সভায় জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক এমপি আলহাজ মতিউর রহমান, বর্তমান অর্থ প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নানের বিরুদ্ধে কটুক্তি করার প্রতিবাদে মঙ্গলবার দুপুর ২টায় ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে প্রতিবাদ সভার আহবান করে। সুনামগঞ্জ-১আসনের এমপি মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের পক্ষের উপজেলা যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ মুরাদ ও জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মতিউর রহমানের পক্ষে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ বিলকিস একই স্থানে একই সময়ে পাল্টা সভা আহবান করে। খবর জানতে পেরে এমপি রতনের লোকজন লাঠি সোটা নিয়ে সকাল ১১টায় আওয়ামীলীগ কার্যালয় দখল করে। এ খবর পেয়ে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মতিউর রহমানের লোকজনও লাঠি সোটা নিয়ে দুপুর ১টায় আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের সামনে যায়। এস ময় দু’গ্রুপের লোকজনের মধ্যে শুরু হয় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নাজমুল হক ও ওসি মোঃ গোলাম কিবরিয়া পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। আওয়ামীলীগ কার্যালয় ও তার আশে পাশের এলাকায় দুপুর আড়াইটা হতে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করে উভয় গ্রুপ মাইকিং  করেন। এ ঘটনার পর থেকে পুরো এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নাজমুল হক বলেন, একই দিনে একই স্থানে আওয়ামীলীগ নেতা কর্মীরা লাঠি সোটা নিয়ে প্রতিবাদ সভায় আসেন। আইন শৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য ওই স্থানে ও আশপাশ এলাকায় দুপুর আড়াইটা হতে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করা হয়।
ধর্মপাশা থানার ওসি গোলাম কিবরিয়া এঘ টনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আপাতত পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

শেয়ার করুন