দলের মধ্যে ঘাপটি মেরে বসে থাকা সুযোগ সন্ধানীদের ব্যাপারে সজাগ থাকুন ॥ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান

JAGANNTHPUR picজগন্নাথপুর প্রতিনিধিঃ অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি বলেছেন, বর্তমান সরকার সারা দেশে উন্নয়ন ও অগ্রগতির মাধ্যমে বিশ্বের বুকে বাংলাদেশকে মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত করতে চায়। কিন্তুু এই অগ্রযাত্রাকে ভালোভাবে দেখছেনা উন্নয়ন বিরোধীরা।  তিনি বলেন, আওয়ামীলীগ এদেশের সাধারণ মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য ৭০ বছর ধরে রাজনীতি করছে। কিন্তু দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি দেখে হিংসা করছে স্বাধীনতা বিরোধীচক্র।
তিনি শনিবার জগন্নাথপুর উপজেলা সদরের আব্দুস সামাদ আজাদ অডিটরিয়ামে উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের আয়োজনে দরিদ্র মানুষের মধ্যে নলকূপ বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হুমায়ুন কবিরের সভাপতিত্বে ও উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক শিক্ষক সাইফুল ইসলাম রিপনের পরিচালনায় এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি প্রবীণ রাজনীতিবীদ সিদ্দিক আহমদ, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আকমল হোসেন, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর সুনামগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, পাটলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি সিরাজুল হক,  জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) খান মোহাম্মদ মাইনুল জাকির সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল কর্মকর্তা আব্দুল রব সরকার। অনুষ্ঠানের শুরুতে কোরআন তেলোওয়াত করেন উপজেলা জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা বদরুল ইসলাম ও গীতা পাঠ করেন শিক্ষক সুদীপ ভট্রাচার্য্য। সভায় ৫০ জন দরিদ্র মানুষের মধ্যে ৫০টি নলকূপের স্লিপ তুলে দেন প্রধান অতিথি।
প্রধান অতিথি বলেন, দেশের বিরুদ্ধে দুটি পক্ষ সক্রিয় রয়েছে। একপক্ষ হচ্ছে স্বাধীনতা বিরোধী রাজাকাররা। আরেক পক্ষ হচ্ছে আমাদের দলের মধ্যে থেকে সুযোগ সুবিধা নিয়ে দলের নাম ভাঙ্গিয়ে সংখ্যালঘুদের জায়গা দখল, সরকারী খাস জমি দখল করে এলাকায় আধিপত্য  বিস্তার করে দলের বদনাম  করছে। বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে দেশের উন্নয়নকে বিঘিœত করতে চায়।  নির্বাচন এলে নৌকার বিরোধীতা করে। আমরা উন্নয়নের জন্য রাজনীতি  করি। গত সাত বছরে জগন্নাথপুর দক্ষিণ সুনামগঞ্জে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে উল্লেখ করে বলেন, জগন্নাথপুরের বিদ্যুতের লো-ভোল্টেজ সমস্যার সমাধান,রানীগঞ্জ সেতু, নলজুর সেতু,সাদীপুর সেতুসহ যোগাযোগ, শিক্ষা,স্বাস্থ্য,কৃষি সার্বিক উন্নয়নে কাজ করছি।  সমালোচনাকারী অপশক্তি এসব উন্নয়ন দেখে দলের মধ্যে বিবাদ সৃষ্টি করতে চায়। তিনি বলেন, আওয়ামীলীগের রাজনৈতিক নেতৃত্ব স্পষ্ট। এখানে কোন বিভক্ত করা যাবে না। জগন্নাথপুরের আমরা আওয়ামীলীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ আছি। আগামীদিনেও ঐক্যবদ্ধ  থেকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের চাকাকে এগিয়ে নিয়ে যাব। তিনি সবাইকে দলের মধ্যে ঘাপটি মেরে বসে থাকা সুযোগ সন্ধানীদের বিরুদ্ধে সজাগ দৃষ্টি রাখার আহ্বান জানান।
এর আগে মন্ত্রী জগন্নাথপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের নতুন ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে দুই কোটি ১৩ লাখ টাকা ব্যয়ে ৫তলা ভবনের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন করেন। এসময় মুক্তিযোদ্ধ সংসদের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন