জৈন্তায় গৃহবধূর মৃত্যুকে ঘিরে রহস্য ॥ স্বামীসহ আটক ৪

indexসিলেটের সকাল রিপোর্টঃ সিলেটের জৈন্তাপুর গৃহবধূ সবিতা রাণীর (২৬) মৃত্যু নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। যৌতুকের দাবিতে স্বামীর  বাড়ির লোকজন তাকে হত্যা করেছে নাকি তিনি আত্মহত্যা করেছেন-এ নিয়ে এলাকায় জোর গুঞ্জন চলছে।  এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ নিহতের স্বামী-শ্বশুর-শাশুড়ি সহ ৪ জনকে আটক করেছে। আটককৃতরা হচ্ছে-সবিতার স্বামী কিরন চন্দ্র বিশ্বাস ওরফে বাবু(৩০), দেবর সুমন চন্দ্র বিশ্বাস (২৭), শ্বশুর সাম চন্দ্র বিশ্বাস (৬৫), শাশুড়ি পুতুল রানী বিশ্বাস (৫০)।
জৈন্তাপুর মডেল থানার ওসি শফিউল আযম পরিবারের বরাত দিয়ে জানান, উপজেলার ২ নং ইউনিয়নের মোকামবাড়ী (আলুবাগান) গ্রামের সাম চন্দ্র বিশ্বাসের ছেলে কিরন চন্দ্র বিশ্বাস ওরফে বাবু(৩০) যৌতুকের দাবী নিয়ে বিভিন্ন সময় স্ত্রী সবিতা রানী বিশ্বাসকে নির্যাতন করে আসছে। ইতোপূর্বে তার দাবির প্রেক্ষিতে স্বামীর বাড়ির লোকজন ৮০ হাজার টাকা মূল্যে তাকে একটি মোটর সাইকেল কিনে দেন। কিন্তু, এরপরও যৌতুক নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ লেগেই ছিল। এই কলহের জের ধরে ৫ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সকাল স্বামী বাবু তার স্ত্রীর ওপর নির্যাতন চালায়। নির্যাতনের এক পর্যায়ে স্ত্রীর মৃত্যু হয়। এ অবস্থায় সে তাকে দড়ি দিয়ে ঘরের তীরের সাথে ঝুলিয়ে রাখে। খবর পেয়ে পুলিশ সুরতহাল রিপোর্ট তৈরীশেষে লাশ থানায় আসে।
ওসি জানান, লাশ ময়না তদন্তের জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্বামীসহ চারজনকে থানায় আনা হয়েছে। সবিতার পিতা কুমুদ বিশ্বাসের বাড়ি কানাইঘাট উপজেলায়। তিনি এ বিষয়ে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।
নিহতের শরীরে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলেও জানা গেছে।

শেয়ার করুন