বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শুরু

Bns-2-620x330সিলেটের সকাল ডেস্ক : তুরাগ তীরে আম-বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে তিন দিনব্যাপী ৫১তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম ধাপ।

শুক্রবার (৮ জানুয়ারি) ফজরের নামাজের পরে ভারতের মাওলানা আবদুর রহমান উর্দুতে এ বয়ান শুরু করেন। রবিবার আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হবে ইজতেমার প্রথম ধাপ।

২০১১ সাল থেকে প্রতিবছর দুই পর্বে বিশ্ব ইজতেমার আয়োজন করা হচ্ছিল। এবার থেকে দুই বছরে চার পর্বে দেশের ৬৪ জেলার তাবলিগ সদস্যদের জন্য ইজতেমায় অংশগ্রহণের ব্যবস্থা হয়েছে।

এরপর ১৫ জানুয়ারি শুরু হবে এবারের ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব, যাতে অংশ নেবেন ১৫টি জেলার মুসলমানরা। এর বাইরে দেশের বাকি ৩২টি জেলার মানুষ আগামী বছর দুই পর্বে ইজতেমায় অংশ নেবেন।

তাবলিগ জামায়াত আয়োজিত বিশ্ব ইজতেমায় দেশ-বিদেশের লাখো ধর্মপ্রাণ মুসল্লি অংশ নিয়েছেন। আখেরি মোনাজাতের আগ পর্যন্ত তাবলিগ জামায়াতের শীর্ষস্থানীয় মুরব্বিরা পর্যায়ক্রমে আখলাক, ঈমান ও আমলের ওপর বয়ান করবেন। বয়ান শুনে ইজতেমা ময়দানে ইবাদত বন্দেগিতে মশগুল থাকবেন লাখো মুসল্লি। গত কয়েকদিন ধরেই মুসল্লিরা দলবেঁধে বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে এসে চটের তৈরি সুবিশাল ছামিয়ানার নিচে অবস্থান নিতে থাকেন। শুক্রবার জুমার নামাজে অংশ নিতে আগ থেকেই লাখো মুসল্লি ইজতেমা ময়দানে অবস্থান নিয়েছেন।

বিভিন্ন জেলার তাবলিগ জামাতের মুসল্লিরা ইজতেমা মাঠে এসে নিজ নিজ জেলাওয়ারি খিত্তায় অবস্থান নিচ্ছেন। বিদেশি মেহমানদের জন্য নির্মিত তাশকিল কামরার টিনের শামিয়ানার পূর্ব পাশে স্থাপিত মূল মঞ্চ থেকে তাবলিগ জামায়াতের শীর্ষ স্থানীয় মুরব্বিরা আরবি ও উর্দুতে বয়ান করবেন। মুসল্লিদের সুবিধার্থে তা বাংলা তরজমা করা হবে। এসব বয়ান ইংরেজি, ফার্সি, মালয় ভাষায়ও তরজমা করা হবে।

ইজতেমা প্রাঙ্গণে প্রতিবারের মতই তাবলিগের সদস্যদের জন্য স্থান নির্দিষ্ট করা হয়েছে। ১৭টি জেলার তাবলিগ সদস্যরা এবার ২৭টি স্থানে বিভক্ত হয়ে সম্মিলনের এই তিনদিন অবস্থান করবেন। এই নির্দিষ্ট এলাকাকে বলা হয় খিত্তা।

১ থেকে ৬ নম্বর খিত্তায় ঢাকা, ৭-এ শেরপুর, ৮ ও ১১-তে নারায়ণগঞ্জ, ৯-এ নীলফামারী, ১০-এ সিরাজগঞ্জ, ১২-তে নাটোর, ১৩-তে গাইবান্ধা, ১৪ ও ১৫-তে লক্ষীপুর, ১৬ ও ১৭-তে সিলেট, ১৮ ও ১৯-এ চট্টগ্রাম, ২০-তে নড়াইল, ২১-এ মাদারীপুর, ২২ ও ২৩-এ ভোলা, ২৪-এ মাগুড়া, ২৫-এ পটুয়াখালী, ২৬-এ ঝালকাঠি ও ২৭-এ পঞ্চগড় জেলা থেকে আসা তাবলিগের সদস্যরা অবস্থান করবেন।

দেশের বিভিন্ন জেলা ও বিদেশ থেকে আসা মুসল্লিরা ছাড়াও জুমার নামাজে অংশ নিতে ঢাকা-গাজীপুরসহ আশেপাশের এলাকার লাখো মুসল্লি ইজতেমাস্থলে অবস্থান নিয়েছেন। শুক্রবার ভোর থেকেই রাজধানীসহ আশেপাশের এলাকা থেকে ইজতেমা মাঠের দিকে মানুষের ঢল নামে। মাঠে স্থান না পেয়ে মুসল্লিরা মহাসড়ক ও অলিগলিসহ যে যেখানে পেরেছেন হোগলা, চটের বস্তা, খবরের কাগজ বিছিয়ে অবস্থান নিয়েছেন।

শেয়ার করুন