বাংলাদেশ শীর্ষ আশাবাদী দেশ

world-bd-সিলেটের সকাল ডেস্ক : নতুন বছর নিয়ে সার্বিকভাবে শীর্ষ আশাবাদী দেশ বাংলাদেশ। আর এ বছরে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির দিক দিয়ে আশাবাদী দেশের তালিকায় আমাদের অবস্থান দ্বিতীয়। তবে গত বছর সুখী দেশের তালিকায় শীর্ষ ১০টির মধ্যে ঠাঁই মেলেনি বাংলাদেশের। গেল বছরে সবচেয়ে সুখী দেশ ছিল কলম্বিয়া।
বিভিন্ন দেশের বাজার গবেষণা ও জনমত জরিপ প্রতিষ্ঠানের আন্তর্জাতিক কনসোর্টিয়াম ওয়ার্ল্ডওয়াইড ইনডিপেনডেন্ট নেটওয়ার্ক/গ্যালাপ ইন্টারন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন বা উইন/গ্যালাপের জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে। ৬৮টি দেশে এ জরিপ চালানো হয়। গত শনিবার জরিপের ফলাফল প্রকাশ করা হয়।
আশাবাদী বা সুখী দেশের এ তালিকার বাইরে হতাশাবাদী বা অসুখী দেশের তালিকাও প্রকাশ করেছে উইন/গ্যালাপ। তালিকা অনুযায়ী, নতুন বছর নিয়ে সার্বিকভাবে শীর্ষ হতাশাবাদী দেশ ইতালি। অর্থনৈতিক হতাশার শীর্ষে গ্রিস। এ ছাড়া সবচেয়ে অসুখী ছিল যুদ্ধ-হানাহানিকবলিত ইরাক।
জরিপের ফলাফল অনুযায়ী, নতুন বছরে সার্বিকভাবে আশাবাদী ওই জরিপে অংশ নেওয়া বাংলাদেশের ৭৪ শতাংশ মানুষ। এ সূচকে প্রতিবেশী ভারত ও পাকিস্তানের অবস্থান যথাক্রমে নবম (৪৭%) ও দশম (৪২%)। সূচকের শীর্ষ ১০ দেশের অন্যগুলো (দ্বিতীয় স্থান থেকে নিম্ন ক্রমানুযায়ী) চীন, নাইজেরিয়া, ফিজি, মরক্কো, সৌদি আরব, ভিয়েতনাম ও আর্জেন্টিনা।
অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি নিয়ে আশাবাদী বাংলাদেশের ৬০ শতাংশ মানুষ। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয়, শীর্ষে নাইজেরিয়া। বাংলাদেশের চেয়ে নাইজেরিয়ার মাত্র ১ শতাংশ বেশি মানুষ তাদের দেশের অর্থনীতি নিয়ে আশাবাদী। এ সূচকে শীর্ষ ১০টি দেশের মধ্যে পাকিস্তান ও ভারতের অবস্থান যথাক্রমে পঞ্চম ও ষষ্ঠ। শীর্ষ দশের অন্য দেশগুলোর মধ্যে চীন (তৃতীয়), ভিয়েতনাম (চতুর্থ), মরক্কো (সপ্তম), ফিজি (অষ্টম), সৌদি আরব (নবম) ও আর্জেন্টিনা (দশম)।
শীর্ষ সুখী ১০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের মতোই স্থান মেলেনি ভারত, পাকিস্তানসহ দক্ষিণ এশিয়ার কোনো দেশের। কলম্বিয়া, ফিজি ও সৌদি আরবের পর এ তালিকার অপর দেশগুলো যথাক্রমে আজারবাইজান, ভিয়েতনাম, আর্জেন্টিনা, পানামা, মেক্সিকো, ইকুয়েডর এবং যৌথভাবে চীন ও আইসল্যান্ড।
তালিকার শীর্ষ ১০ অসুখী দেশ হলো ইরাক, তিউনিসিয়া, গ্রিস, আফগানিস্তান, ফিলিস্তিন, ঘানা, হংকং, বুলগেরিয়া, গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র কঙ্গো এবং যৌথভাবে ফ্রান্স ও ইতালি।
জরিপে বলা হয়, বিশ্বের সমৃদ্ধিশালী ও ধনী রাষ্ট্র বলে বিবেচিত, বিশেষত ইউরোপের আইসল্যান্ড ছাড়া অন্য কোনো দেশই শীর্ষ ১০টি সুখী রাষ্ট্রের মধ্যে ঠাঁই পায়নি। ৬৮টি দেশের ৬৬ হাজার ৪০ জনের সাক্ষাৎকারের ভিত্তিতে তৈরি করা হয়েছে জরিপ প্রতিবেদনটি।
২০১৫ সালের শেষ নাগাদ জরিপে অংশগ্রহণকারীদের ৬৬ শতাংশ বলেছেন, তাঁরা নিজেদের সুখী বলে মনে করেন। এর আগের বছর ২০১৪ সালের চেয়ে এটা ৪ শতাংশ কম। ১০ শতাংশ লোক বলেছেন, তাঁরা অসুখী। আগের বছরের চেয়ে এটা ৪ শতাংশ বেশি।

শেয়ার করুন