রাজনগরে স্ত্রী হত্যার অভিযোগে স্বামী গ্রেপ্তার

grefরাজনগর সংবাদদাতা : মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার পাঁচগাঁওয়ে স্বামীর নির্যাতনে স্ত্রীর মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। রাজনগর থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। এব্যাপারে নিহতের ভাই বাদী হয়ে স্বামী বদরুল মিয়াকে আসামি করে মামলা করেছেন। পুলিশ তাকে সোমবার গ্রেপ্তার করেছে।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, মৌলভীবাজার সদর উপজেলার সমপাশি গ্রামের সোনা মিয়ার মেয়ে শেলী বেগম (২৮)-এর সঙ্গে ১০ বছর আগে বিয়ে হয় রাজনগর উপজেলার পাঁচগাঁও ইউনিয়নের পাঁচগাঁও গ্রামের মৃত আসলাম উল্লার ছেলে বদরুল মিয়া ওরফে বদলু মিয়া (৩৫)-এর সঙ্গে। তাদের ঘরে এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই স্বামী বদরুল মিয়া তাকে প্রায়ই মারধর করতো। এনিয়ে শেলী বেগম মামলা করলে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সহায়তায় আপোষে শেষ হলে তিনি আবারো স্বামীর ঘর করতে থাকেন। এদিকে গত ১৫ই ডিসেম্বর সকালে কথাকাটাকাটি নিয়ে উভয়ের মধ্যে ঝগড়া হলে স্বামী বদরুল মিয়া তাকে বেধড়ক মারপিট করেন। এতে তিনি গুরুতর আহত হলে প্রথমে রাজনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে সেখান থেকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত রোববার বিকালে তার মৃত্যু হয়। এদিকে নিহতের স্বামী বদরুল মিয়া তড়িঘড়ি করে লাশ দাফনের চেষ্টা করলে শেলী বেগমের ভাই আহাদ মিয়া রাজনগর থানা পুলিশকে খবর দেন। পরে রাতেই রাজনগর থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মৌলভীবাজার মর্গে প্রেরণ করে। এব্যাপারে নিহতের ভাই আহাদ মিয়া বাদী হয়ে সোমবার বিকালে রাজনগর থানায় মামলা করেছেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রাজনগর থানার উপ-পরিদর্শক শাহিন মিয়া বলেন, লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহতের ভাই তার বোনের স্বামীকে আসামি করে মামলা করেছেন। আসামি বদরুল মিয়াকে গতকাল আটক করা হয়েছে।

শেয়ার করুন