নগরীর রাস্তায় নির্মাণ সামগ্রী রাখলে কঠোর ব্যবস্থা

SCC PIC-14.12.15-2সিলেটের সকাল রিপোর্ট:‘পাথর, বালু, ইট, সিমেন্ট ইত্যাদি পাইকারী ও খুচরা বিক্রি করা হয় …’ এই শিরোনামের সাইনবোর্ডটি কোন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বা দোকানের সামনে টানানো হয়নি। এই সাইনবোর্ডটি লাগানো হয়েছে কবরস্থানের সীমানা প্রাচীরের ভেতরে!
শুধু সাইনবোর্ড নয়, সিলেট মহানগরীর বাগবাড়ি প্রধান সড়কের পাশের চৌধুরী টিলা কবরস্থানের জায়গার ভেতরেই স্তুপাকারে রাখা হয়েছে নির্মাণ সামগ্রীতে ব্যবহৃত বাঁশ। আর কবরস্থানের বাইরের প্রধান সড়কের সারিবদ্ধভাবে রাখা ইট, বালু ও পাথরের স্তুপ। সড়কের বিপরীত মুখের ইট বালু পাথর ও বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান এসব নির্মাণ সামগ্রী রেখে রাস্তা দখল করেছেন। প্রতিদিন যানজট ও জনদুর্ভোগের পাশাপাশি বালু ও পাথরের চাপায় ড্রেন বন্ধ হয়ে গেলেও সেদিকে ব্যবসায়ীদের কোন ভ্রæক্ষেপ নেই।
সিলেট মহানগরীর ৯ নম্বর ওয়ার্ডের এই ব্যস্ততম সড়কের বিপরীত দিকে গড়ে উঠছে বহুতল দালান। কিন্তু নির্মাণ সামগ্রী রাখা হয়েছে রাস্তার উপর।
বারবার নোটিশ প্রদানের পরও রাস্তা দখলমুক্ত না হওয়ায় এবং জনদুর্ভোগ লাঘবের উদ্দেশ্যে সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) বেলা ১২টায় এই সড়কে অভিযান চালায় সিলেট সিটি কর্পোরেশন। সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবীবের নেতৃত্বে পরিচালিত এই অভিযানকালে রাস্তা দখল করে রাখা ইট, বালু ও পাথর জব্দ করে সিলেট সিটি কর্পোরেশন। এছাড়াও এই সড়কের উপর অবৈধভাবে গড়ে তোলা ১০টি দোকান উচ্ছেদ করে সিলেট সিটি কর্পোরেশন। SCC PIC-14.12.15-5
এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সম্মানিত কাউন্সিলর মো: ইলিয়াছুর রহমান, ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সম্মানিত কাউন্সিলর মখলিছুর রহমান কামরান, প্রধান প্রকৌশলী ভারপ্রাপ্ত নুর আজিজুর রহমান, নির্বাহী ম্যাজিস্টেট মো: শরীফুজ্জামান, নির্বাহী প্রকৌশলী আলী আকবর, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো: হানিফুর রহমানসহ আরও অনেকে।
এই ব্যাপারে সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবীব বলেন, রাস্তায় নির্মাণ সামগ্রী ফেলে রাখার কারণে পথচারী ও যানবাহন চলাচলে মারাত্মক বিঘœ ঘটছে। জনদুর্ভোঘ লাঘবের উদ্দেশ্যে সিটি কর্পোরেশন এই অভিযান শুরু করেছে। প্রধান সড়কের পাশাপাশি মহানগরীর পাড়ায় পাড়ায় এই অভিযান চালানো হবে। এই ব্যাপারে সিটি কর্পোরেশন এখন থেকে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করবে।
এদিকে একই দিন মহানগরীর সাগরদিঘীরপাড় ও বাগবাড়ি বর্ণমালা স্কুলের সামনের রাস্তায় অবৈধভাবে গড়ে উঠা দুটি দোকানও উচ্ছেদ করে সিলেট সিটি কর্পোরেশন।

শেয়ার করুন