তিনজন মেয়র প্রার্থীর দুজন অক্ষরজ্ঞানসম্পন্ন

পৌর-নির্বাচনসিলেটের সকাল ডেস্ক : নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার নজিপুর পৌরসভায় মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বী তিন প্রার্থীর দুজন অক্ষরজ্ঞানসম্পন্ন। দুজনের বিরুদ্ধে মামলা বিচারাধীন। তিন প্রার্থীই পেশায় ব্যবসায়ী। রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে প্রার্থীদের দেওয়া হলফনামা ঘেঁটে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।
মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা হলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক রেজাউল কবির চৌধুরী, পৌর বিএনপির সভাপতি ও বর্তমান মেয়র আনোয়ার হোসেন এবং উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী।
দেখা গেছে, আওয়ামী লীগের প্রার্থী রেজাউল কবির চৌধুরী হলফনামায় শিক্ষাগত যোগ্যতার ঘরে লিখেছেন এইচএসসি পাস। পেশায় তিনি ব্যবসায়ী। ধান-চাল কেনাবেচা করেন। তাঁর বার্ষিক আয় ২ লাখ ৮০ হাজার টাকা। রেজাউলের বিরুদ্ধে বর্তমানে একটি ফৌজদারি মামলা বিচারাধীন।
বিএনপির মনোনীত প্রার্থী আনোয়ার হোসেন হলফনামায় শিক্ষাগত যোগ্যতার ঘরে লিখেছেন অক্ষরজ্ঞানসম্পন্ন। পেশা লিখেছেন ব্যবসা। তাঁর বার্ষিক আয় ২ লাখ ৮০ হাজার টাকা। তাঁর বিরুদ্ধে দুটি মামলা বিচারাধীন।
জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী আজগর আলীর হলফনামায় শিক্ষাগত যোগ্যতার ঘরে লিখেছেন অক্ষরজ্ঞানসম্পন্ন। পেশায় তিনিও ব্যবসায়ী। তাঁর বার্ষিক আয় ১ লাখ ৭৫ হাজার টাকা। তাঁর ওপর নির্ভরশীলদের আয় ২ লাখ ৪০ হাজার টাকা।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বিএনপির প্রার্থী বর্তমান মেয়র আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘হলফনামায় দেওয়া আমার সব তথ্য সঠিক। ভোটাররা শিক্ষাগত যোগ্যতার চেয়ে কর্মদক্ষতার দিকটা বেশি দেখেন। আশা করি, পাঁচ বছরের কাজের মূল্যায়ন হলে আমি আবার পাস করব।’
জাতীয় পার্টির প্রার্থী আজগর আলী বলেন, ‘আমি দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় রাজনীতি করি। তেমন কোনো শিক্ষাগত যোগ্যতা না থাকলেও ব্যবসা ও রাজনীতিতে আমি সফল। সে হিসেবে ভোটাররা আমাকে মূল্যায়ন করবেন বলে বিশ্বাস করি।’

শেয়ার করুন