টুর্নামেন্টের সেরা জাইদি, দেশের সেরা আবু হায়দার

Abu_haidar_2স্পোর্টস রিপোর্টার : এবারের বিপিএলের আগে তারা দুজন আলোচনায় ছিলেন না। কিন্তু টুর্নামেন্ট শুরুর পর থেকে দুজনেই নিজেদের মেলে ধরতে থাকেন। আর দুজনই বিপিএলের তৃতীয় আসরের চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের খেলোয়াড়। একজন পাকিস্তানের বৃটিশ পাসপোর্টধারী অল রাউন্ডার আশার জাইদি। অন্যজন বাংলাদেশের বয়স ভিত্তিক দল থেকে উঠে আসা তরুণ ফাস্ট বোলার আবু হায়দার। রনি হিসেবেই পরিচিতি যার। আবু হায়দার পেয়েছেন এবারের বিপিএলের সবচেয়ে মূল্যবান বাংলাদেশি খেলোয়াড়ের পুরস্কার। আর জাইদি জিতেছেন বিপিএলের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার।

বিপিএলের শুরু থেকেই নিজেকে চেনাতে থাকেন আবু হায়দার। নেত্রকোনার এই বাঁ হাতি ফাস্ট বোলার টুর্নামেন্টের মাঝপথেই চলে আসেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারের প্রতিযোগিতায়। দুটি ম্যাচে নিয়েছেন ৪ উইকেট করে। টুর্নামেন্টে ১২ ম্যাচে তার শিকার ১৫.০৪ গড়ে ২১ উইকেট। ফাইনালের দিন পর্যন্ত টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী ছিলেন। কিন্তু এদিন তিনি উইকেট পাননি। বরিশাল বুলসের কেভিন কুপার উঠে আসেন। ২২ উইকেট নিয়ে এবারের বিপএলের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী তিনি। আর তার পরের জায়গাটি বয়স ২০ এর কোটায় থাকা আবু হায়দারের।

জাইদি ব্যাটে বলে সমান উজ্জ্বল। গত দুই আসরের ম্যান অফ দ্য টুর্নামেন্ট হয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। এই প্রথম বিদেশী কোনো খেলোয়াড় পেলেন টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কার। বল হাতে বাঁ হাতি এই স্পিনার ১১ ম্যাচে নিয়েছেন ১৭ উইকেট। গড় ১০.৪১। যুগ্মভাবে চতুর্থ সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী তিনি। ব্যাট হাতে সুযোগ পেলেই জ্বলে উঠেছেন জাইদি। ১১ ম্যাচে ৫৩.৭৫ গড়ে ও ১৩৮.৭০ স্ট্রাইক রেটে ২১৫ রান করেছেন। একটি ফিফটি। টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকদের তালিকায় সপ্তম অবস্থানে ৩৪ বছরের জাইদি।

শেয়ার করুন