কোম্পানীগঞ্জে ৭ ডাকাত গ্রেফতার, মাদক উদ্ধার

imagesকোম্পানীগঞ্জ সংবাদদাতা: সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে ডাকাত-ছিনতাইকারী ও মাদক বিক্রেতাদের বিরুদ্ধে সাঁড়াশি অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। গত দুইদিনে চিহ্নিত ৭জন পেশাদার ডাকাত ও ছিনতাইকারীকে আটক করেছে পুলিশ। উদ্ধার করা হয়েছে একটি মোটর সাইকেল ও নগদ টাকা। বিপুল পরিমাণ মাদকের চালানও আটক করা হয়েছে কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশের এ অভিযানে।
পুলিশ ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার জহিরুল ইসলাম নামের এক পাথর ব্যবসায়ী সিলেট থেকে সিএনজি অটোরিক্সা যোগে কোম্পানীগঞ্জ আসার পথে ছিনতাইকারীদের কবলে পড়েন। দু’টি মোটর সাইকেলযোগে চার যুবক সড়কের খাগাইল এলাকায় গাড়ির গতিরোধ করে অস্ত্রের মুখে ব্যবসায়ীর সাথে থাকা টাকাকড়ি ছিনিয়ে নেয়। পরে ছিনতাইয়ের শিকার ওই ব্যবসায়ীর দেয়া তথ্য মতে অভিযানে নামে কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশ। পরদিন বুধবার দিনভর অভিযান চালিয়ে সিলেট নগরীর বিভিন্ন স্থান থেকে চার ছিনতাইকারীকে আটক করে পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে সিলেট-ল-১১-৮৭৩৭ নম্বরের একটি পালসার মোটর সাইকেল ও ৩০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়। ধৃত ডাকাতরা হলো- সিলেটের জালালাবাদ থানার ফকিরেরগাঁও এলাকার মইনুদ্দিন সেলিম (৪২), রায়নগর গ্রামের মোস্তাক ইসলাম (৩৮), সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর থানার মোগলাবাজারের কামরান (৩০) ও সিলেট নগরের খাসদবীর এলাকার গোলজার (৩৪)। তাদের বিরুদ্ধে কোম্পানীগঞ্জ থানায় দ্রুত বিচার আইনে মামলা হয়েছে বলে থানা সূত্রে জানা গেছে। এদিকে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার কলাবাড়ী এলাকায় দেলোয়ার হোসেন (৩২) নামের এক পাথর ব্যবসায়ী ডাকাতদের কবলে পড়েন। অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ডাকাতরা তার সাথে থাকা ৭৬ হাজার টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। একই সময়ে বাবুল ভেরাইটিজ স্টোরে হানা দিয়ে ৪টি মোবাইল ফোন ও ৭ হাজার টাকা লুটে নেয় ডাকাতদল। খবর পেয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি বায়েছ আলমের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং ঘন্টাদেড়েক অভিযান চালিয়ে ডাকাতির সাথে জড়িত থাকা অভিযোগে তিনজনকে আটক করে। আটকরা হলো- উপজেলার পুরাতন মেঘারগাঁও গ্রামের ফজর আলী (২২), সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার লম্বাভাগ গ্রামের রুবেল হোসেন (২১) ও কোম্পানীগঞ্জ গ্রামের আব্দুল ছালামের পুত্র আরাফাত হোসেন (২৫)। তাদেরকে আদালতে মাধ্যমে জেলহাজাতে পাঠানো হয়েছে।
এদিকে গতকাল শুক্রবার বিকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ২৮৮ বোতল ভারতীয় মদের চালান আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, একদল মাদক ব্যবসায়ী মদের চালান নিয়ে কোম্পানীগঞ্জ থেকে নদী পথে নোৗকাযোগে ছাতকের দিকে যাচ্ছিল। খবর পেয়ে কাটাখাল এলাকায় নৌকা থামিয়ে মদের এ চালান আটক করে পুলিশ। তবে পুলিশের অবস্থান টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়। আটক মদের আনুমানিক মূল্য ৫ লাখ টাকা বলে জানায় পুলিশ। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে উপজেলার ফেদারগাঁও গ্রামের আবু কাউছার (৩০), কাছা মিয়া (২৫) ও কয়েছ (২৫)সহ ৮জন মাদক বিক্রেতার বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।
কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি বায়েছ আলম ডাকাত গ্রেফতার ও মদের চালান আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ছিনতাইকারী, ডাকাত ও মাদক ব্যবসায়ীদের তালিকা হালনাগাদ করে বিশেষ অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। মানুষের নিরাপত্তায় প্রতিনিয়ত পুলিশ সদস্যরা কাজ করছে উল্লেখ করে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলাকে ডাকাত ও মাদকমুক্ত রাখতে সর্ব মহলের সর্বাত্মক সহযোগিতা চেয়েছেন ওসি।

শেয়ার করুন