আমিরের কারণে ক্যাম্প বর্জন হাফিজ-আজহারের

amirস্পোর্টস রিপোর্টার : স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারির জন্য ৫ বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়েছেন মোহাম্মদ আমির। কিন্তু জাতীয় দলে ফেরা যে সহজ হবে না সেটা অনুমেয়ই ছিল। আমিরকে দলে না নেওয়ার জন্য পাকিস্তানের অনেক সাবেক ক্রিকেটার দাবি তুলেছিলেন। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে সে বিতর্ক আরও উসকে দিয়েছিলেন দলটির অলরাউন্ডার মোহাম্মদ হাফিজ। কিন্তু এরপরও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড পারফরম্যান্স বিবেচনা করে আমিরকে কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ডেকেছে। কিন্তু তাতেও থামছে না বিতর্ক, খোদ দলটির অধিনায়ক যে তাতে ক্যাম্প বর্জন করেছেন!

২০১০ স্পট ফিক্সিংয়ের কারণে নিষেধাজ্ঞার খড়গে পড়া আমির চলতি বছর ঘরোয়া লিগে দারুণ পারফরম্যান্স করেছেন। আর বিপিএলে অসাধারণ পারফরম্যান্স করে নজর কাড়েন নির্বাচকদের। যদিও আমির খেলার কারণে চিাটাগাং ভাইকিংসের দেওয়া প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন অলরাউন্ডার হাফিজ। ওইসময় তিনি আমিরের সাথে একই দলে খেলতে অস্বীকৃতি জানান।

তবে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজকে সামনে রেখে ২৬ সদস্যের দলকে কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ডেকেছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। লাহোরে ২১ ডিসেম্বর থেকে এ ক্যাম্প শুরু হলে এখনো পাকিস্তানের ওয়ানডে অধিনায়ক আজহার আলী ও অলরাউন্ডার মোহাম্মদ হাফিজ অংশ নেননি এতে। তারা উভয়ে করাচিতে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলছেন।

পাকিস্তানের টিম ম্যানেজার আগা আকবর জানিয়েছেন, মোহাম্মদ আকবরের কারণে হাফিজ ও আজহার ক্যাম্পে আসেনি।

এ বিষয়ে আজহার বলেছেন, আমি এ ক্যাম্পে অংশ নিতে পারি না। কারণ সেখানে আমির আছে। এটি আমার সিদ্ধান্ত এবং আমরা (হাফিজসহ) পিসিবির সাথে এ বিষয়ে আলোচনা করব। আমি হাফিজের সিদ্ধান্তের ব্যাপারে মন্তব্য করতে পারি না, কিন্তু আমাদের অবস্থান একই।

শেয়ার করুন