হেলে পড়া ভবনে ঝুঁকিপূর্ণ চিকিৎসাসেবা

Golapganj Picture 13-11-15 +++++সৈয়দ জেলওয়ার হোসেন স্বপন, গোলাপগঞ্জ
ভবনটি একপাশে হেলে পড়েছে, দেয়ালে দেখা দিয়েছে ফাটল, দেবে গেছে মেজে। এই চিত্র সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার হেতিমগঞ্জের কায়স্থগ্রাম কমিউনিটি ক্লিনিকের। এমন ভবনেই ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিন চলছে তৃণমূল মানুষের চিকিৎসা। বিপদজনকভাবে এই চিকিৎসাসেবা যেকোনো মুহূর্তে বিপর্যয় ডেকে আনতে পারে বলে আশঙ্কা স্থানীয়দের।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, ২০০১ সালে উপজেলার ফুলবাড়ি ইউপির কায়স্থগ্রামে ৫ শতক ভূমিতে একতালা বিশিষ্ট কমিউনিটি ক্লিনিকটি নির্মাণ করা হয়। শুরু থেকেই অভিযোগ ছিল, ওই ভবনে নিম্নমানের মালামাল ব্যবহার করা হয়েছে। কয়েক বছর যেতেই তা প্রমাণিত হয়। এরমধ্যে বিগত সময়ে সারাদেশের কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোর সাথে এই ক্লিনিকের কার্যক্রমও বন্ধ ছিল দীর্ঘদিন। পরিত্যত্ত অবস্থায় থেকে সেটি এখন ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। কিন্তু এই ভবনের সংস্কার না করেই সেখানে আবার শুরু করা হয়েছে চিকিৎসাসেবা। ফলে দায়িত্বরত ডাক্তারসহ অন্যদের বাধ্য হয়েই ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে বসে সেবা দিতে হচ্ছে।

সরেজমিনে কায়স্থগ্রাম কমিউনিটি ক্লিনিক পরিদর্শনে গেলে দেখা যায় ভবনটির পূর্ব দিক হেলে পড়েছে। এছাড়া ছাদের বিভিন্ন স্থানে ও দেয়ালে বড় বড় ফাটল দেখা দিয়েছে। মেজেরও একাধিক স্থান দেবে গেছে। সংশ্লিষ্টরা জানালেন, বর্ষার সময় বৃষ্টির পানি ছাদ চুষে পড়ে ঔষধ, জরুরী কাগজপত্র, আসবাবপত্র, বৈদ্যুতিক ভাল্ব, ফ্যান নষ্ট হয়ে যায়। ক্লিনিকের চারপাশে দেয়াল না থাকায় সেবা প্রদানকারীরা নানা সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। ক্লিনিকে আসবাবপত্রের সংকট রয়েছে। বসার চেয়ার, টেবিল অত্যন্ত নড়বড়। প্রতিদিন অর্ধশতাধিক আগত রোগীরা ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে ঝুঁকি নিয়ে চিকিৎসা সেবা গ্রহন করছেন। স্থানীয়রা কায়স্থগ্রাম কমিউনিটি ক্লিনিকের নানা সমস্যা নিরসন করতে সংশ্লিষ্ট বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তার হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

এ ব্যপারে ক্লিনিকের সভাপতি মারুফ হোসেন জানান, ক্লিনিকের ভবনটি অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। যে কোন মুহোর্তে বড় ধরণের দুর্ঘটনার শিকার হতে পারেন চিকিৎসাসেবা প্রদান ও গ্রহণকারীরা। অপরদিকে ভবনের বিভিন্ন স্থানের দেয়ালে একাধিক ফাটল দেখা দিয়েছে, ভবনের মেজেতে একাধিক স্থান দেবে গেছে। সংশ্লিষ্ট বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ নিয়মিত মনিটরিং না করায় ওই ক্লিনিকের অবস্থা অত্যন্ত করুন। তিনি সংশ্লিষ্ট বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে ওই সব সমস্যার ব্যাপারে অবহিত করবেন।

শেয়ার করুন