সড়ক দুর্ঘটনায় শিল্পপতি কাজী ফারুক নিহত : অবরোধ ভাঙচুর

কাজী ফারুক

কাজী তাজুল ইসলাম চৌধুরী ফারুক

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : সড়ক দুর্ঘটনায় বিশিষ্ট শিল্পপতি কাজী তাজুল ইসলাম চৌধুরী ফারুক নিহত হয়েছেন।

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের হবিগঞ্জের নছরতপুর নামক স্থানে সোমবার সকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

১/১১ এর পরে ওয়েস্টমন্ট পাওয়ার লিমিটেডে চাঁদাবাজির অভিযোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে মামলা করেছিলেন তিনি। পরে ২০১০ সালের ৩০ মে হাইকোর্ট এক আদেশে মামলাটি খারিজ করে দেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জেলার সদর উপজেলার অলিপুরে অবস্থিত হযরত শাহ ফতেহ গাজী (র.)-এর মাজার থেকে প্রাইভেটকারযোগে বাড়ি ফেরার পথে ওই স্থানে পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা সবজিবোঝাই একটি ট্রাক (ঢাকা মেট্রো ট-১৮-৮৩২০) প্রাইভেটকারটিকে ধাক্কা দেয়। এতে তাজুল ইসলাম গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে নেওয়ার পথে ভৈরবে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে সড়ক দুর্ঘটনায় তাজুল ইসলামের মৃত্যুর খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে উত্তেজিত জনতা মহাসড়কের দু’পাশে রাস্তায় গাছ ফেলে অবরোধ করেন। এ সময় প্রায় ২০টি যানবাহন ভাঙচুর ও টায়ার পুড়িয়ে মহসড়কে বিক্ষোভ করা হয়। এ ঘটনায় সিলেট মহাসড়কে কয়েক ঘণ্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে এবং তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

খবর পেয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী, হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শহিদুল ইসলাম, সহকারী পুলিশ সুপার মাকছুদুর রহমান মনির, সদর থানার ওসি নাজিম উদ্দিন, শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসি এজাজুল ইসলামসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয়দের সান্ত্বনা দিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেন। দুপুর ১২টার দিকে মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শহিদুল ইসলাম বলেন, বর্তমানে মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক আছে।

শেয়ার করুন