শিশু সাঈদের পিতাসহ পাঁচজনের সাক্ষ্যগ্রহণ

Abu-Saed-Photo-7.11.5সিলেটের সকাল : সিলেটে শিশু আবু সাঈদ (৯) হত্যা মামলার বাদীসহ পাঁচজনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেছেন আদালত।  সিলেট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আবদুর রশিদ বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে প্রথম দিনের এ সাক্ষ্যগ্রহণ করেন। এর আগে মঙ্গলবার একই আদালতে এসএমপির বিমানবন্দর থানার কনস্টেবল (বরখাস্ত) এবাদুর রহমান, কথিত সোর্স আতাউর রহমান গেদা, সিলেট জেলা ওলামা লীগের সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম রাকিব ও প্রচার সম্পাদক মুহিব হোসেন মাসুমের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করা হয়।

সিলেট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পিপি এ্যাডভোকেট আবদুল মালেক  জানান, প্রথম দিন শিশু সাঈদ হত্যা মামলায় পাঁচজনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে। তারা হলেন— মামলার বাদী ও শিশু সাঈদের বাবা আবদুল মতিন, ফিরোজ আহমদ, আশরাফুজ্জামান, ওলিউর রহমান ও শফিকুল ইসলাম। এ মামলায় সাক্ষী রয়েছেন ৩৭ জন। রবিবার মামলার পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের দিন নির্ধারণ করা হয়েছে।

সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট প্রথম আদালত থেকে ২৯ অক্টোবর মামলাটি সিলেট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তর করা হয়। এর আগে ২৩ সেপ্টেম্বর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসএমপির কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) মোশাররফ হোসাইন চারজনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট প্রদান করেন।  আলোচিত এ মামলায় চারজনের বিরুদ্ধে দাখিল করা চার্জশিট ৮ নভেম্বর আমলে নেন আদালত।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ১১ মার্চ বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সিলেট নগরীর রায়নগর থেকে স্কুলছাত্র আবু সাঈদকে অপহরণ করা হয়। এর পর ১৪ মার্চ বিমানবন্দর থানার কনস্টেবল এবাদুর রহমানের কুমারপাড়ার (ঝর্ণারপাড় সবুজ) ৩৭ নম্বর বাসার ছাদের চিলেকোঠা থেকে সাঈদের বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

শেয়ার করুন