রাজন হত্যা : কামরুলের ভাই শামীমের আত্মসম্পর্ণ, জেল

rajan_219194919সিলেটের সকাল : সিলেটের শিশু শেখ সামিউল আলম রাজন হত্যা মামলায় ৭ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি শামীম আহমদ অবশেষে আদালতে আত্মসম্পর্ণ করেছেন। ঘটনার প্রায় সাড়ে চার মাসের মাথায় রোববার সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন তিনি। বিচারক আকবর হোসেন মৃধা তার জামিন নামঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

শামীম এই মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত প্রধান আসামি কামরুল ইসলামের ছোট ভাই ও সিলেট সদর উপজেলার জালালাবাদ থানার কুমারগাঁও এলাকার শেখপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল মালেকের ছেলে।  এ মামলায় শামীমের সঙ্গে ৭ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড হয়েছে ওপর দুই সহোদর মুহিত আলম, আলী হায়দারের। ৮ নভেম্বর মহানগর দায়রা জজ আদালতে রায় ঘোষণাকালে শামীম পলাতক ছিলেন।

কামরুল ছাড়াও চৌকিদার সাদিক আহমদ ময়না ওরফে বড় ময়না, তাজউদ্দিন আহমদ বাদল ও  জাকির হোসেন পাভেল  এ মামলায় ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত হন। এছাড়া ওই মামল‍ায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত হন নূর আহমদ এবং এক বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত হন আয়াজ আলী ও দুলাল আহমদ।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ৮ জুলাই সিলেটের কুমারগাঁওয়ে নির্মম নির্যাতন চালিয়ে শিশু সামিউল আলম রাজনকে হত্যা করা হয়। রাজন সিলেট সদর উপজেলার কান্দিরগাঁও ইউনিয়নের বাদেআলী গ্রামের আজিজুর আলমের বড় ছেলে।

শেয়ার করুন