রাজনের মামার রেস্টুরেন্ট ভাঙচুর লুট

5সিলেটের সকাল : সিলেটে আলোচিত হতাকাণ্ডের শিকার শিশু সামিউল আলম রাজনের মামার রেস্টেুরেন্টে হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এ সময় তারা রেস্টুরেন্টের ক্যাশ বাক্স থেকে নগদ টাকাও লুট করে নিয়ে যায়। সোমবার দিবাগত রাত সোয়া ১২টার দিকে নগরীর বাগবাড়িস্থ রাজনের মামার তকদির রেস্টুরেন্টে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

রাজনের মামা ওমর ফারুক জানান, সোমবার সন্ধ্যায় তার দোকানের সামনের ফুটপাতে একজন কাপড় বিক্রেতা বসে কাপড় বিক্রি করছিলেন। এ সময় স্থানীয় চাঁদাবাজ আজাদ মিয়া (২৪) ও কালা রমজান (২৮) ওই কাপড় ব্যবসায়ীর কাছ থেকে চাঁদা আদায় করছিলেন। চাঁদা আদায়কালে কাপড় ব্যবসায়ী ও চাঁদা আদায়কারীদের মধ্যে তর্কাতর্কি শুরু হয়। এক পর্যায়ে রাজনের মামা ওমর ফারুক তার দোকনের সামনে ঝামেলা করতে মানা করেন। তখন কিছু না বলেই তারা ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

কিন্তু রাত সোয়া ১২টার দিকে চাঁদাবাজ আজাদ ও কালা রজমান কয়েলজন সন্ত্রাসী নিয়ে তার রেস্টুরেন্টে এসে হামলা চালায়। এ সময় ওসর ফারুক রেন্টেুরেন্টের ছিলেন। এক পর্যায়ে আজাদ একটি ছুরি বের করে দোকানের ক্যাশে থাকা টাকা লুট করে নিয়ে যায়। যাওয়ার সময় রেস্টুরেন্টের আসবাবপত্র ভাঙচুর করে।

এদিকে, রাত ২টায় লামাবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মাসুদ রানার নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এরপর রাত সোয়া ২টার দিকে কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মোশরফ হোসেন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন।

শেয়ার করুন