নূর হোসেনকে হস্তান্তর করল ভারত

150227145222_noor_hossain_in_india_640x360_bbc_nocreditডেস্ক রিপোর্টঃনারায়ণগঞ্জের সাত খুন মামলার প্রধান আসামি নূর হোসেনকে বাংলাদেশের হাতে তুলে দিয়েছে ভারত। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ইমিগ্রেশন পুলিশের হাতে নূর হোসেনকে তুলে দেয় ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফ। বেনাপোল বন্দরের ওসি ইমিগ্রেশন তরিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেন। বিজিবি’র মহাপরিচালকও বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নূর হোসেনকে র্যাব ও পুলিশ প্রহরায় নারায়ণগঞ্জে আনা হচ্ছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সরকারের উচ্চ পর্যায়ের নির্দেশে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের একজন অতিরিক্ত পুলিশ সুপারে নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম বেনোপলের উদ্দেশে রওনা দেয়।

নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার ড. খন্দকার মহিদ উদ্দিন বৃহস্পতিবার রাতে সাংবাদিকদের জানান, নূর হোসনকে সীমান্তে আনার পর কিছু প্রক্রিয়া শেষ করে বাংলাদেশ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে তুলে দেবে ভারত। পরে গ্রেফতারি পরোয়ানা বলে নূর হোসেনকে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ গ্রেফতার করে আদালতে হাজির করবে।

এর আগে ১৭ অক্টোবর উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার মুখ্য বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট সন্দ্বীপ চক্রবর্তী নূর হোসেনকে শিগগিরই ফিরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন। এমনকি দেশটির আদালত আগামী ১৫ ডিসেম্বরের মধ্যে নিয়ম মেনে প্রত্যর্পণ সম্পন্ন করার সময়সীমা বেঁধে দিয়েছেন। এর মধ্যে বুধবার ভারতের বিচ্ছিন্নবাদী নেতা অনুপ চেটিয়াকে ভারতে প্রত্যর্পণ করা হয়। এর পরেই নূর হোসেনকে দেশে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু হয়।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ-ঢাকা লিংক রোড থেকে নাসিক কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, আইনজীবী চন্দন সরকারসহ ৭জনকে অপহরণ করে র‌্যাব-১১এর একটি দল। পরে তিনদিন পর ৩০ এপ্রিল ৬জন ও ১ মে একজনের লাশ শীতলক্ষ্যা নদী থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনায় দায়ের করা দুটি মামলার তদন্ত শেষে র‌্যাব-১১-এর বহিষ্কৃত তিন কর্মকর্তা ও নূর হোসেনসহ ৩৫জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দিয়েছে মামলার তদন্তকারী সংস্থা জেলা ডিবি পুলিশ। এরমধ্যে ২২ জন গ্রেফতার হয়ে কারাবন্দি রয়েছেন। আর নূর হোসেনসহ ১৩ জন পলাতক। তবে নুর হোসেন ভারতে গ্রেফতার হয়ে ওই দেশের কারাগারে বন্দি ছিলেন। গত বছরের ১৪ জুন ভারতে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

 

শেয়ার করুন