দখল ঠেকাতে ছড়া ও খালে নির্মাণ হচ্ছে প্রাচীর

SCC Pic-15.11.15-2সিলেটের সকাল : সিলেট মহানগরীর বিভিন্ন ছড়া ও খাল উদ্ধারের পাশাপাশি এসব ছড়া ও খাল এর সীমানা নির্ধারণ করে দেয়াল নির্মাণ শুরু করেছে সিলেট সিটি কর্পোরেশন। দখলমুক্ত ছড়া ও খালের জায়গায় যাতে পুনরায় জবরদখল না হয় সেজন্যই এই উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে।
এরই ধারাবাহিকতায় রোববার (১৫ নভেম্বর) বেলা ১১টায় ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে চলমান মুগলীছড়ায় দেয়াল নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর ও সিটি কর্পোরেশনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ। চলতি বছরের অক্টোবর মাস থেকে মুগলীছড়ার মনিপুরী রাজবাড়ী অংশে দেয়াল নির্মাণ কাজ শুরু হয়।
পরিদর্শনকালে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবীব জানান, প্রায় ৫০ লাখ টাকা ব্যয়ে এই প্রকল্পের আওতায় ৫০০ ফুট দেয়াল নির্মাণ করা হচ্ছে। ছড়া ও খাল এর দখলমুক্ত জায়গুলো যাতে পুনরায় দখল না হয় সেজন্যই এই উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে। আগামী ডিসেম্বর মাসেই মুগলীছড়ার মনিপুরী রাজবাড়ী থেকে লামাবাজার পর্যন্ত অংশের কাজ সম্পন্ন হওয়ার ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।
পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শান্তুনু দত্ত সন্তু, সিটি কর্পোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) নুর আজিজুর রহমান, সহকারী প্রকৌশলী শামসুল হক।
উল্লেখ্য, মুগলীছড়াটি সিলেট জেলা স্টেডিয়ামের পেছন দিক শুরু হয়ে দাড়িয়াপাড়ায় এবং পরবর্তীতে মনিপুরী রাজবাড়ী-লামাবাজার-কাজিরবাজার হয়ে সুরমা নদীতে মিশেছে।
এদিকে একই দিন সিলেট মহানগরীর ২ নম্বর ওয়ার্ডের সরসপুর রাস্তার প্রশস্তকরণ কাজ পরিদর্শন করেন সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর এবং উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ। এলাকাবাসীর সহযোগিতায় এই রাস্তাটি প্রশস্তকরণ করছে সিলেট সিটি কর্পোরেশন। এই কাজ পরিদর্শনকালে সম্মানিত কাউন্সিলরদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রাজিক মিয়া, ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শান্তুনু দত্ত সন্তু।

শেয়ার করুন