কিবরিয়া হত্যা মামলায় আরো দু’জনের সাক্ষ্য গ্রহণ

b-413সিলেটের সকাল রিপোর্ট:সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া হত্যা মামলায় বুধবার আরো দুই সাক্ষী সাক্ষ্য দিয়েছেন।  তারা হলেন-মিজানুর রহমান ও নজরুল ইসলাম। এ নিয়ে এ মামলায় এ পর্যন্ত ৮ জনের সাক্ষ্য নেয়া হলো। সিলেট বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইবু্নালের বিচারক মকবুল আহসান তাদের সাক্ষ্য নেন। বৃহস্পতিবার ফের এ মামলায় আরো সাক্ষ্য গ্রহণ করা হবে।
বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের পিপি এডভোকেট কিশোর কুমার কর জানান, আজ আদালতে কারান্তরীণ ১৪ আসামির মধ্যে ১২ জন হাজির ছিলেন। অসুস্থতার জন্য সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর অনুপস্থিত ছিলেন। ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন আরিফরে পক্ষে আদালতে হাজিরা দেন তার আইনজীবী এডভোকেট মোহাম্মদ লালা।
এডভোকেট কিশোর কর আরো জানান, কিবরিয়া হত্যা মামলার ৩২ আসামির মধ্যে ৮ জন জামিনে, ১৪ জন কারাগারে ও ১০ জন পলাতক রয়েছেন।
এর আগে গত ৫ নভেম্বর আবদুর রউফ ও এরফান আলী নামক দুইজন আদালতে সাক্ষ্য দেন। গত ৩০ সেপ্টেম্বর আদালতে সাক্ষ্য দেন হবিগঞ্জ-২ আসনের সাংসদ ও হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মজিদ খান। গত ২১ অক্টোবর আদালতে সাক্ষ্য দেন তিন আবদুল মতিন, আবদুল কাইয়ুম ও ঈমান আলী।
টানা নয় দফা পেছানোর পর গত ১৩ সেপ্টেম্বর প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া হত্যা মামলার চার্জ (অভিযোগ) গঠন করা হয়। মামলার সকল আসামি সিলেট দ্রুত বিচার আদালতে হাজির হওয়ায় বিচারক মকবুল আহসান চার্জ গঠন করেন। চার্জশিটভুক্ত মোট আসামীর সংখ্যা ৩২ জন।

২০০৫ সালের ২৭ জানুয়ারি হবিগঞ্জ সদরের বৈদ্যের বাজারে এক জনসভায় গ্রেনেড হামলায় নিহত হন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া। হামলায় নিহত হন কিবরিয়ার ভাতিজা শাহ মনজুরুল হুদা, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুর রহিম, আবুল হোসেন ও সিদ্দিক আলী। এ ঘটনায় হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক আবদুল মজিদ খান হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে দুটি মামলা দায়ের করেন। হত্যা মামলাটি সিলেট বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে এবং বিস্ফোরক মামলা হবিগঞ্জের জেলা ও দায়রা জজ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

শেয়ার করুন