এক মলাটে ইসলামী লেখকেরা

resize_1447810784ইসলামকে বিষয় হিসেবে ধারণ করে যারা লেখালেখি করেন তাদের সংখ্যাটা কম নয়। মূল ধারার বাইরে বড় একটি শ্রেণী নিরেট দ্বীনি বিষয়ে লেখালেখি করছেন। এক সময় কওমী মাদরাসাগুলোতে বাংলা ভাষা চর্চা অঘোষিতভাবে নিষিদ্ধ থাকলেও এখন মাদরাসাপড়ুয়ারা লেখালেখিতে বেশ সরব। বাংলাবাজারকেন্দ্রিক ইসলামি বইয়ের একটি বিশাল বাজার গড়ে উঠেছে। দৈনিক পত্রিকাগুলো আলাদা ইসলামী পাতা বের করছে। শুধু ইসলামকে উপজীব্য করে অনেক পত্রপত্রিকা ও সাময়িকী বের হচ্ছে। এই হিসেবে ইসলামী ধারার লেখকদের সংখ্যাটাও কম নয়। সাধারণ ধারার বইগুলো বের হয় শুধু ফেব্রুয়ারি মাসে একুশে বইমেলাকে কেন্দ্র করে। আর ইসলামী ধারার বই সারা বছরই বের হয়। সংখ্যার বিচারে সাধারণ ধারার চেয়ে ইসলামী ধারার বইপত্র বেশি বের হচ্ছে।

তবে ইসলামী ধারার লেখকদের সঠিক পরিসংখ্যান কোথাও নেই। সচরাচর লেখকপঞ্জিতে ইসলামী ধারার হাতেগোনা কয়েকজন লেখক স্থান পেয়ে আসছেন। এর বাইরে অনেকেই শক্তিমান লেখক হওয়া সত্ত্বেও স্থান পাচ্ছেন না। ইসলামী ধারার সঙ্গে যুক্ত লেখকদের এবারই প্রথম মলাটবদ্ধ করা হয়েছে ‘ইসলামী লেখক অভিধান’ বইটিতে।

ইসলামী ধারা ও ভাবাপন্ন ৫৪৪ জন লেখকের সংক্ষিপ্ত জীবনপঞ্জি ‘ইসলামী লেখক অভিধান’। এই বইটিতে ইসলাম নিয়ে যারা লেখালেখি করেন তাদের বড় অংশটি যুক্ত হয়েছেন। যারা বাদ পড়েছেন তাদেরকে পরবর্তী সংস্করণে যুক্ত করা হবে বলে বইটির ভূমিকায় উল্লেখ করা হয়েছে। যাদের কমপক্ষে একটি বই আছে, লেখালেখিতে যারা সক্রিয় এবং লেখক হিসেবে যাদের মোটামুটি পরিচিতি আছে তারাই এই বইয়ে লেখক হিসেবে যুক্ত হয়েছেন। অক্ষরের ধারাক্রম হিসেবে লেখকদের তালিকা করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট লেখকের ছবি, মোবাইল নম্বর এবং ই-মেইল অ্যাড্রেসও দেয়া হয়েছে।

1011642_10201888362318793_450552361_n

জহির উদ্দিন বাবর

এই অভিধানটি প্রণয়নের কাজ সমন্বয় করেছেন শাহ আবদুল হালিম হুসাইনী। বইটি সম্পাদনা করেছেন সাংবাদিক জহির উদ্দিন বাবর। সঙ্গে রয়েছেন মাসউদুল কাদির ও রোকন রাইয়ান। আর উপদেষ্টা হিসেবে আছেন চারজন খ্যাতিমান লেখক মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী, ড. আ ফ ম খালিদ হোসেন, মাওলানা শরীফ মুহাম্মদ এবং মাওলানা মুহাম্মদ যাইনুল আবিদীন।

সাদা হোয়াইট পেপারে ছাপা, ঝকঝকে প্রচ্ছদে মোড়ানো ১৭৬ পৃষ্ঠার বইটির গায়ের মূল্য ২২০ টাকা। ইসলামী লেখক অভিধান সম্পাদনা পরিষদ থেকে প্রকাশিত বইটির একমাত্র পরিবেশক আল ইরফান পাবলিকেশন্স। বাংলাবাজারসহ দেশের অভিজাত লাইব্রেরিগুলোতে পাওয়া যাচ্ছে মূল্যবান এই বইটি। শরঃধনমযড়ৎ.পড়স এর মাধ্যমে আপনি ঘরে বসেও বইটি সংগ্রহ করতে পারবেন। যেকোনো পাঠকের সংগ্রহে রাখার মতো মূল্যবান এই বইটির বহুল প্রচার কামনা করছি।

-এমদাদুল হক তাসনিম

শেয়ার করুন