‘উভয় পক্ষ দেশের সর্বনাশ করছে’

অধ্যাপক আবুল কাশেম ফজলুল হক

অধ্যাপক আবুল কাশেম ফজলুল হক

সিলেটের সকাল ডেস্ক : জাগৃতী প্রকাশনীর প্রকাশক ফয়সল আরেফিন দীপন হত্যার ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ায় নিহতের বাবা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক আবুল কাসেম ফজলুল হক বলেছেন, যারা ধর্মনিরপেক্ষতাবাদ নিয়ে রাজনীতি করছেন, যারা রাষ্ট্রধর্ম নিয়ে রাজনীতি করছেন, উভয় পক্ষ দেশের সর্বনাশ করছেন। শোকাহত পিতা বলেন, আমি কোনো বিচার চাই না। আমি চাই শুভবুদ্ধির উদয় হোক। উভয় পক্ষের শুভ বুদ্ধির উদয় হোক। এটুকুই আমার কামনা। জেল-ফাঁসি দিয়ে কী হবে।

তিনি বলেন, ছেলে খুন হয়েছে কিন্তু কারও বিরুদ্ধে আমার কোনো অভিযোগ নেই। মামলা করারও প্রয়োজন বোধ করি না। হয়তো বা বিধির (আইন) কারণে মামলা করতে হবে। কিন্তু কি লাভ? যারা হামলা করেছে তাদের রাজনৈতিকভাবে পৃষ্ঠপোষকতা দেয়া হচ্ছে। এ কারণেই এ ধরনের ঘটনা বারবার ঘটছে।

 ঢাবির অবসরপ্রাপ্ত প্রবীণ শিক্ষক অধ্যাপক আবুল কাশেম ফজলুল হক বলেন, দুপুর দেড়টা পর্যন্ত সে বাসায় ছিল। পরে শাহবাগ প্রকাশনীর অফিসে যায়। লালমাটিয়ার খবর পেয়ে আমার ছেলেকে ফোন করি। কিন্তু সে ফোন রিসিভ করছিল না। দ্রুত আজিজ সুপার মার্কেটে তার অফিসে ছুটে আসি। এসেই তার লাশ পাই।

কারা এই খুনের সঙ্গে জড়িত—জানতে চাইলে শনিবার বিকালে জাগৃতি কার্যালয়ের সামনে আবুল কাসেম ফজলুল হক বলেন, ‘বিষয়টা অত্যন্ত স্পষ্ট। লালমাটিয়ায় যারা হামলা করেছে, তারাই দীপনকে হত্যা করেছে। অভিজিৎ দীপনের বন্ধু ছিল। ওর বইও দীপন বের করেছে। তবে সে ধর্মের বিরুদ্ধে কখনো লেখেনি। কোনো উসকানিও দেয়নি। কখনো কারও সঙ্গে দুর্ব্যবহারও করেনি। কারও সঙ্গে ব্যক্তিগত শত্রুতাও নেই।’

শেয়ার করুন