পিতাকে পাগল সাজিয়ে হাসপাতালে ভর্তি …

osmaaninogorওসমানীনগর প্রতিনিধি : ওসমানীনগরে পিতাকে পাগল সাজিয়ে হাসপাতালে ভর্তির তাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার বিকেলে নগরীর উপশহরস্থ মনোরোগ হাসপাতাল থেকে আব্দুল খালিক নামের ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে ওসমানীনগর থানা পুলিশ।

পুলিশ জানায়, উপজেলার সাদীপুর ইউনিয়নের গজিয়া গ্রামের আব্দুল খালিক (৬০) কে দীর্ঘদিন থেকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করে আসছিলো তার মাদকাসক্ত ছেলে আব্দুল কাহের (৩৩)। ৫ অক্টোবর আব্দুল খালিককে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করে আব্দুল কাহের। এ ঘটনায় আব্দুল খালিক ৭ অক্টোবর আব্দুল কাহেরকে আসামী করে সিলেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। এর জেরে ১৯ অক্টোবর আব্দুল খালিককে জোরপূর্বক গাড়িতে তুলে সিলেট নিয়ে আসে কাহের। পরবর্তীতে তাকে পাগল সাজিয়ে নগরীর উপশহরস্থ মনোরোগ হাসপাতালে ভর্তি করে রাখে। এঘটনা জানাজানি হলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে ঘটনাটি প্রকাশিত হয়। শুক্রবার পুলিশ তাকে উদ্ধার করে ওসমাননীনগর থানায় নিয়ে আসে।

ওসমানীনগর থানার এসআই রাকিবুল হাসানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ নগরীর উপশহরস্থ মনোরোগ হাসপাতাল থেকে আব্দুল খালিককে উদ্ধার করে। এ সময় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পুলিশের সাথে অসহযোগিতামূলক আচরণ করেছেন বলে অভিযোগ।

এসআই রাকিবুল  জানান, শুক্রবার বিকেলে ওসমানীনগর থানার একদল পুলিশ আব্দুল খালিককে উদ্ধার করতে হাসপাতালে যায়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ উদ্ধার কাজে সহযোগিতা না করে যুক্তি তর্কে লিপ্ত হয়। খবর পেয়ে পাশ্ববর্তী শাহজালাল পুলিশ ফাঁড়ি থেকে অপর একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। এরপর তাকে উদ্ধার করে ওসমানীনগর থানায় নেয়া হয়। আজ তাকে কোর্টে প্রেরণ করা হবে বলে জানান তিনি।

 

শেয়ার করুন