কিবরিয়া হত্যায় সাক্ষ্য গ্রহণ হয়নি : ৪ ও ৫ নভেম্বর নতুন তারিখ

Kibriya-md20150706130031সিলেটের সকাল : সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএসএম কিবরিয়া হত্যা মামলায় আজ বৃহস্পতিবার নির্ধারিত দিনে সাক্ষ্যগ্রহণ হয়নি। বুধবার মুলতবি হওয়া ‍দুজনের সাক্ষ্য গ্রহণের কথা ছিল আজ। ৪ ও ৫ নভেম্বর নতুন তারিখ ধার্য করেছেন আদালত।

আজ আদালতে হবিগঞ্জ পৌরসভার সাময়িক বরখাস্তকৃত মেয়র জিকে গউছসহ ৫ জন হাজির ছিলেন। পর্যাপ্ত আসামি আদালতে হাজির না হওয়ায় সাক্ষ্য গ্রহণ হয়নি।

বুধবার পর্যাপ্ত আসামি আদালতে হাজির না হওয়ায় আবদুর রউফ ও এরফান আলী নামে দুই সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ মুলতবি করে বৃহস্পতিবার নতুন তারিখ ধার্য করেন সিলেট বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মকবুল আহসান। সিলেট বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের পিপি কিশোর কুমার কর এই তথ্য জানান।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর মামলার বাদি হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও  সংসদ সদস্য (এমপি) আব্দুল মজিদের সাক্ষ্যগ্রহণের মধ্য দিয়ে বহুল আলোচিত এই মামলার বিচারকার্য শুরু হয়। পরে ২১ অক্টোবর ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী তিনজনের সাক্ষ্য নেওয়া হয়। তারা হলেন, আব্দুল মতিন, আব্দুল কাইয়ুম ও ইমান আলী। এ নিয়ে ১৭১ সাক্ষীর মধ্যে চারজন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে।

২০০৫ সালের ২৭ জানুয়ারি হবিগঞ্জ সদরের বৈদ্যের বাজারে এক জনসভায় গ্রেনেড হামলায় নিহত হন সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এস কিবরিয়াসহ অনেকে। ঘটনায় ওই রাতেই হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক আবদুল মজিদ খান হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে দু’টি মামলা দায়ের করেন।

আলোচিত এ মামলায় তিন দফা তদন্তের পর তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির সিলেট অঞ্চলের সহকারী পুলিশ সুপার মেহেরুন নেছা পারুল ২০১৪ সালের ২১ ডিসেম্বর হারিছ চৌধুরী, আরিফ, গউসসহ ১১ জনের নাম যোগ করে মোট ৩২ জনের বিরুদ্ধে সম্পূরক অভিযোগপত্র দেন। যার মধ্যে ১০ আসামি জামিনে, ৮ জন পলাতক এবং ১৩ আসামি কারাগারে। এছাড়া আরিফুল হক চৌধুরী কারা হেফাজতে ঢাকায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

শেয়ার করুন