কমেডিয়ানই এখন প্রেসিডেন্ট

164175_1সিলেটের সকাল ডেস্ক : লোকদের হাসাতে কতকিছুই না করেছেন কমেডিয়ান জিমি মোরালেস। কখনো প্রেসিডেন্ট, কখনো ভিখারির অভিনয় করতে হয়েছে। কিন্তু কখনো কি ভেবেছিলেন একদিন সত্যি সত্যিই প্রেসিডেন্ট হয়ে যাবেন তিনি! অবিশ্বাস্য হলেও এটাই ঘটেছে মোরালেসের জীবনে।

গুয়েতেমালায় গত রবিবার অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্সিয়াল নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন সাবেক টিভি কমেডিয়ান মোরালেস। সরকার চালনায় অনভিজ্ঞ মোরালেসের কাঁধে পড়েছে এবার সত্যিকার অর্থে জনগণকে খুশি করার ভার।

৭০ শতাংশ ভোট গণনায় দেখা গেছে এর মধ্যে ৭২ দশমিক ৪ শতাংশ ভোট পেয়েছেন মোরালেস। অপরদিকে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক ফার্স্টলেডি সান্দ্রা তোরেস পেয়েছেন ২৭ দশমিত ৬ শতাংশ ভোট।

প্রাথমিক এ ফলাফলের পর নির্বাচনে পরাজয় মেনে নিয়েছেন তোরেস। অপরদিকে মোরালেস নিজেকে জয়ী দাবি করেছেন। তার দল ন্যাশনাল কনভারজেন্স ফ্রন্ট (এফসিএন) নাচ-গানের মাধ্যমে বিজয় উদযাপন শুরু করেছে।

বিজয়ের পরপরই দুর্নীতির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার ঘোষণা দিয়েছেন মোরালেস। তবে রাজনীতিতে অনভিজ্ঞ ৪৬ বছর বয়সী এই কমেডিয়ানের জন্য দেশ চালানো বেশ কঠিন হবে বলে ধারণা করছেন রাজনীতি বিশ্লেষকরা।

ভোট পর্ব শেষে অনেক ভোটারই বলেছেন তারা মোরালেসকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে সমর্থন করেন না। কিন্তু তাদের সামনে কোনো উপযুক্ত কোনো প্রার্থী না থাকায় মোরালেসকে ভোট দিয়েছেন।

দুর্নীতির অভিযোগে গত মাসে পদত্যাগ ও গ্রেফতার হন দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট ওত্তো পেরেজ। এরপরই এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হল।

শেয়ার করুন