সিলেট থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করলেন বৃটিশ পার্লামেন্ট নির্বাচনে বাঙালি প্রার্থী মিনা রহমান

Photo Minaসিলেটের সকাল রিপোর্ট : সিলেট থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করলেন বৃটেনের আসন্ন পার্লামেন্ট নির্বাচনে বার্কিং আসন থেকে কনজারভেটিভ পার্টি মনোনীত বাঙালি প্রার্থী মিনা রহমান। বৃহস্পতিবার সিলেট নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করে তার নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, হযরত শাহ জালাল (র.) পূণ্যভূমি এবং শ্রী চৈতন্য মহাপ্রভুর পিতৃভূমি দুটি পাতা একটি কুড়ির দেশে সিলেট আমার জন্মস্থান। আউল-বাউলের দেশ পবিত্রভূমি সিলেট থেকে আপনাদের দোয়া নিয়ে আমি  নির্বাচনী  প্রচারণা শুরু করতে চাই।  আর এ কারণেই সিলেট আসা বলে জানালেন মিনা রহমান।

মিনা রহমান সকলের সহযোগিতা চেয়ে বলেন, আমি যে আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি, সেখানে আট হাজারেরও বেশী বাঙ্গালী ভোটার রয়েছেন। আর বেশি অংশই বৃহত্তর সিলেটের মানুষ। বাংলাদেশ থেকে আত্মীয়-স্বজন ও পরিচিতরা তাদের অনুরোধ করলে তারা তাকে ভোট দিবে।

সংবাদ সম্মেলনে মিনা বলেন, ২০১৫ সালের মে মাসে অনুষ্ঠিতব্য  বৃটিশ পার্লামেন্ট নির্বাচনে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি আমাকে গ্রেটার লন্ডনের বার্কিং আসন থেকে মনোনয়ন দিয়েছে। অন্যান্য দল থেকে আরো কয়েকজন বাঙ্গালী মনোনীত হলেও কনজারভেটিব পার্টি থেকে একমাত্র বাঙ্গালী হিসেবে আমি মনোনয়ন পেয়েছি।

মিনা রহমান বলেন, আমি মাত্র ২১ দিন বয়সে ইল্যান্ডে পাড়ি জমাই। ইল্যান্ডে বেড়ে উঠলেও আমি শেকড় থেকে বিচ্যুত হয়নি। নিজেকে একজন বাঙ্গালী হিসেবে পরিচয় দিতে গর্ববোধ করি। ছাত্রজীবন থেকে বৃটিশ রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হলেও বৃটেনের বহুজাতিক সমাজে বাঙ্গালী কৃষ্টি ক্যালচার ও সংস্কৃতিকে তুলে ধরতে কাজ করছি। চাকুরির পাশাপাশি লন্ডন বাংলা উইম্যান নেটওয়ার্কের মাধ্যমে বৃটিশ বাঙ্গালী মহিলাদের নিয়ে বাংলার বিকাশে কাজ করছি। ২৯ বছর যাবত বৃটেনে নিজেকে কমিউনিটির সেবায় নিয়োজিত রেখেছি।
একজন আউটরিচ ওয়ার্কার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করে বলে জানান মিনা। আউটরিচ ওয়ার্কার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করলেও তিনি এখন হাউজিং এসোসিয়েশনের হাউজিং ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত রয়েছে।

DSC_0340সংবাদ সম্মেলনে তিনি কনজারভেটিব পার্টির প্রশংসা করে বলেন, কনজারভেটিভ  পার্টি বাঙ্গালী ভ্যালুতে বিশ্বাসী। মাইগ্রেন্ট কমিউনিটি বিশেষ করে মধ্যবিত্ত ও নিম্ন আয়ের মানুষের কল্যাণে সবচেয়ে বেশি অবদান রেখেছে তার পার্টি কনজারভেটিভ। বৃটেনে অর্থনৈতিক মন্দার সময় লেবার পার্টি সকল সুযোগ-সুবিধাকে সংকুচিত করেছিল। তবে, কনজারভেটিব পার্টি জনগনের চাকুরিসহ জনকল্যাণে সব ধরনের সুযোগকে আরো প্রারিত করেছে। আগামীতে কনজারভেটিব পার্টি আবার ক্ষমতায় গেলে সাড়ে বার হাজার পাউন্ড পর্যন্ত যাদের আয় তাদেরকে কোন টেক্স পরিশোধ করতে হবে না বলে জানান তিনি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি নির্বাচনে বিজয়ী হলে শুধু বাঙ্গালী কমিউনিটর এমপি হব না। আমি আমার নির্বাচনী এলাকায় বসবাসরত সকল নাগরিকের এমপি হব। সকলের সহযোগতায় এগিয়ে যাব। আমার নির্বাচনী এলাকার জনগনকে নিয়ে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করব। যাতে কোন নাগরিকই বেকার না থাকতে পারে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- প্রবাসী গীতিকার ও সঙ্গীত শিল্পী হিমাংশু গোস্বামী, ভাতগাও ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ প্রমুখ।

শেয়ার করুন