সিলেটে ভিওআইপি সরঞ্জামাদিসহ আটক ব্যক্তিকে ১০ দিনের রিমান্ডে নেয়ার আবেদন

news_img-1সিলেটের সকাল রিপোর্ট:সিলেট নগরীর সুবিদবাজার বনকলাপাড়া থেকে ভিওআইপি সরঞ্জামাদিসহ গ্রেফতারকৃত তারেক উদ্দিনকে (৩১) আদালতের মাধ্যেমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। ধৃত তারেক জালালাবাদ থানার তালুকদারপাড়ার মৃত ইনসান আলীর পুত্র। বর্তমানে সে সুবিদবাজার বনকলাপাড়া নূরানী ৫৯/৩ নম্বর বাসার ২য় তলার ৪নং ফ্ল্যাটের বাসিন্দা।

এয়ারপোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরুল আলস জানান, শুক্রবার গ্রেফতারকৃত তারেক উদ্দিনকে আদালতের মাধ্যেমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আদালতে ১০ দিনের পুলিশ বিমান্ডের আবেদন জানানো হয়েছে বলে জানান তিনি।
র‌্যাব সুত্রে জানা গেছে, নগরীর বনকলাপাড়াস্থ নূরানী ৫৯/৩ নম্বর বাসায় সরকারের কর ফাঁকি দিয়ে গোপনে ভিওআইপি ব্যবসা চালিয়ে আসছিলেন তারেক। গোপনে এমন সংবাদ পেয়ে গত বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে র‌্যাপিট এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-৯)‘র একটি দল সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় র‌্যাব অভিযানকালে তার কাছ ওই ফ্ল্যাট থেকে ১টি মডেম পুল, ২৫টি সীম কার্ড, ১টি ল্যাপটপ, ২টি কম্পিউটার সিপিইউ, ১টি এলইডি মনিটর, ১টি ল্যাপটপ, ২টি রাউটার, ৯টি মডেম, ৬টি মোবাইল ফোনসহ ভিওআইপি সামগ্রী উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত সরঞ্জামাদির মুল্য প্রায় ১১ লাখ টাকা। এ ব্যাপারে র‌্যাব-৯’র এক এসআই বাদি হয়ে তার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ টেলি যোগাযোগ আইনে এয়ারপোর্ট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। নং- ২ (০৪-১২-১৪)।

শেয়ার করুন