সর্বসাধারণের শ্রদ্ধায় সিক্ত কাইয়ুম চৌধুরী

77589_kaiumMসকাল ডেস্ক:   দেশবরেণ্য চিত্রশিল্পী কাইয়ুম চৌধুরীর মরদেহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদ থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আনা হয়েছে। সোমবার বেলা পৌনে ১২টায় মরদেহে সর্বস্তরের জনগণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাখা হয়।

বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান, কথাসাহিত্যিক আনিসুল হক, বিশিষ্ট লেখক আবু সাঈদ খান, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নাসির উদ্দীন ইউসুফ বাচ্চু, মুক্তিযুক্ত জাদুঘরের ট্রাস্টি সারওয়ার আলী মরদেহে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এ সময় আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে জাহাঙ্গীর কবির নানাক, আবদুস সোবহান গোলাপ, আব্দুল মতিন খসরু এবং বিএনপির পক্ষ থেকে যুগ্মমহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, আব্দুস সালাম, খায়রুল কবির খোকন মরদেহে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এছাড়া বিভিন্ন রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতা-কর্মীরা মরহুমের মরদেহে ফুল দিয়ে শেষ শ্রদ্ধা জানান।

এর আগে বেলা ১১টা ২০ মিনিটে দীর্ঘদিনের স্মৃতিবিজড়িত কর্মস্থল চারুকলার গ্রাফিক্স বিভাগের সামনে কাইয়ুম চৌধুরীর মরদেহ রাখা হয়।

বাদ জোহর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে মরহুমের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। জানাজা শেষে আজিমপুর কবরস্থানে দেশবরেণ্য এ শিল্পীকে তার নানার কবরের পাশে দাফন করা হবে।

একুশে ও স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত শিল্পী কাইয়ুম চৌধুরী রবিবার রাত ৮টা ৪০ মিনিটে আর্মি স্টেডিয়ামে বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসংগীত উৎসবের চতুর্থ দিনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেওয়ার সময় অসুস্থ হয়ে পড়েন। সঙ্গে সঙ্গে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) নেওয়া হলে রাত ৯টার দিকে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। রাতে তার মরদেহ রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়।

শেয়ার করুন