শাবি’র ঘটনায় রিমান্ডে থাকা ৯ ছাত্রলীগ কর্মীকে জেলে প্রেরণ

আটক ৫ ছাত্রলীগ কমী-ফাইল ছবি

আটক ৫ ছাত্রলীগ কমী-ফাইল ছবি

সিলেটের সকাল রিপোর্ট:শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের বন্দুকযুদ্ধ ও সংঘর্ষের ঘটনায় দায়ের করা পুলিশ এসল্ট মামলায় দুই দিনের রিমান্ডে থাকা ৯ ছাত্রলীগ কর্মীকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শুক্রবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে জেলে প্রেরণ করেছে পুলিশ। গত বুধবার পুলিশ তাদেরকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে।

আদালত সুত্রে জানা গেছে,সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট-১ এর বিচারক মোঃ আনোয়ারুল হকের আদালতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (আইও) ও জালালাবাদ থানার এস আই আতিকুর রহমান গত ১ ডিসেম্বর তাদেরকে ৫ দিনের রিমান্ডে নেয়ার আবেদন জানান। আদালত তাদের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। গত বুধবার থেকে তাদেরকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মামলার আইও আতিকুর রহমান। যে ৯ ছাত্রলীগ কর্মীকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল তারা হচ্ছেন-জয়ন্ত দাস,আশিক মুরসালিন, উজ্জ্বল আহমদ, নাঈম আহমদ, বেলাল আহমদ, সজল দাস অনিক, মেহেদী হাসান, এমরান হোসাইন ও সুলতান আহমদ। এর মধ্যে শাবি ছাত্র ছাড়াও কয়েকজন বহিরাগত ছাত্রলীগ কর্মীও রয়েছেন।
উল্লেখ্য, গত ২০ নভেম্বর শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে। এতে সুমন চন্দ্র দাস (২২) নামে এক ছাত্রলীগ কর্মী নিহত হয় । সুমন সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ছাত্র । এ ঘটনায় আহত হয় আরো ২০ জন। বন্দুক যুদ্ধের পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়। জালালাবাদ থানায় মোট ৪টি মামলা দায়ের করা হয়। আটক করা হয় ৩৩ ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীকে। এর মধ্যে পুলিশ এসল্ট মামলায় ৯ জনকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন