রাতারগুলে পরিবেশ বিধ্বংসী কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশ

১সিলেটের সকাল ডেস্ক : গোয়াইনঘাট উপজেলার ফতেহপুর এলাকাবাসী অভিযোগের প্রেক্ষিতে দেশের একমাত্র জলারবন রাতারগুল সরেজমিন পরিদর্শন করেছে বন বিভাগের তদন্ত টিম। গত বৃহস্পতিবার সকালে তারা সরেজমিন পরিদর্শনে গিয়ে অভিযোগের সত্যতা পান।

পরিদর্শন টিমের সূত্র জানায়, কর্মকর্তারা পরিদর্শনে গিয়ে সরকারি খাস জমি জোরপূর্বক দখল করে ফসলি জমি বানিয়ে ফেলার চিত্র দেখে বিষ্ময় প্রকাশ করেন। এছাড়া মুর্তা, বেত, মুল্যবান গাছপালাসহ জলাসয় থেকে অবৈধভাবে মাছ ধরে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া যায়।

উল্লেখ্য, এ বিষয়ে গত ১ ডিসেম্বর এলাকাবাসী স্মারকলিপি প্রদান করে সিলেটের বিভিন্ন প্রশাসনিক দপ্তরে। স্মারকলিপির ভিত্তিতে এ পরিদর্শনে যান তদন্ত দল।

পরিদর্শন টিমে ছিলেন সহকারী বন কর্মকর্তা (এসিএফ) রাজেশ চাকমা, রেঞ্জ অফিসার আতাউর রহমান, রাতারগুল বিটের হুমায়ুন আহমদ ও বজলু মিয়া।

এ ব্যাপারে রেঞ্জ অফিসার আতাউর রহমান জানান, রাতারগুল বিটের অন্তর্ভুক্ত ৩/৪ একর খালি জায়গার মধ্যে স্থানীয় কিছু ভূমিহীন কৃষক জমিতে ফসল ফলানোর চেষ্টা করে। এসব জমিতে ফসল না ফলাতে এদেরকে তদন্ত টিমের পক্ষ থেকে কঠোরভাবে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। এ বছরই এখানে মুর্তা বাগান সৃজন করা হবে।

এ সময় এলাকাবাসীর পক্ষে উপস্থিত ছিলেন, রাশিদ আলী, হেলাল আহমদ, বেলাল আহমদ মুনশী, আইয়ুব আলী, তেরা মিয়া চৌধুরী, আব্দুর রহিম, লুৎফুর রহমান, আব্দুল মান্নান, জামাল উদ্দিন প্রমুখ।

শেয়ার করুন