বিগব্যাশ খেলা নিয়ে সংশয়ে সাকিব

shakib in big bashস্পোর্টস রিপোর্টার : বিদেশী লিগে খেলার বিষয়ে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা উঠে গেছে বৃহস্পতিবার রাতেই। অচিরেই তাই সাকিব আল হাসান অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া টোয়েন্টি২০ আসর বিগব্যাশে খেলবেন, এমন আশায় সাকিব ভক্তরা। কিন্তু এবারের বিগব্যাশে খেলা নিয়ে স্বয়ং সাকিবই রয়েছেন সংশয়ে। শুক্রবার যমুনা ফিউচার পার্কে নিজের ‘কসমেটিক যোভাইন’ দোকানে বসে এমন সংশয়ের কথা জানিয়েছেন এই দেশসেরা ক্রিকেটার। গত মৌসুমে বিগব্যাশে এ্যাডিলেড স্ট্রাইকার্সের হয়ে খেলেছেন সাকিব। এবারও দলটি সাকিবের অপেক্ষায় ছিল। কিন্তু সাকিবের নিষেধাজ্ঞা উঠতে দেরি হওয়ায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের অলরাউন্ডার ড্যারেন স্যামিকে দলে টেনেছে এ্যাডিলেড স্ট্রাইকার্স। যে কারণেই এবারের বিগব্যাশে তার খেলা নিয়ে সংশয় সৃষ্টি হয়েছে। অবশ্য এতে হতাশ নন সাকিব। বলেছেন, ‘এখনও সম্ভাবনা শেষ হয়ে যায়নি। ২-৩টি দলের সঙ্গে কথাবার্তা চলছে। সবকিছু ঠিকঠাক হলে এই মৌসুমে বিগব্যাশে খেলব। আর নয়ত একটা বছর অপেক্ষা করব।’

বিদেশী লিগ বিষয়ক নিষেধাজ্ঞা কাটার পর নিজেকে পুরোপুরি মুক্ত মনে করছেন সাকিব আল হাসান। তার ভাষায়, ‘আমি খুব খুশি। বেশ ভাল লাগছে। বিসিবি আমার ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ায় আমি এই মৌসুম থেকে বিদেশী লিগগুলোতে অংশগ্রহণ করতে পারব। বিগব্যাশে না হোক, শ্রীলঙ্কা কিংবা ক্যারিবিয়ান অথবা আইপিএল খেলতে আর আমার কোনো বাধা নেই।’

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খুলনায় দ্বিতীয় টেস্টে একমাত্র বাংলাদেশী হিসেবে এবং ইতিহাসের তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে এক ম্যাচে সেঞ্চুরির পাশাপাশি ১০ উইকেট শিকার করার রেকর্ডের মালিক হয়েছেন সাকিব। প্রত্যাবর্তনের সিরিজে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে নিজের পারফরম্যান্সে ভীষণ খুশি তিনি। সাকিব বলেছেন, ‘আমি আমার পারফরম্যান্সে অনেক খুশি। যেভাবে চাইছিলাম ঠিক সেভাবেই সবকিছু করতে পেরেছি। সামনে বিশ্বকাপ; সেখানেও এই ধারা অব্যহত রাখতে চাই।’

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে (বিসিবি) ধন্যবাদ জানিয়ে সাকিব বলেছেন, ‘আমার ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নেওয়ায় বিসিবিকে ধন্যবাদ জানাই।’

ক্রিকেট মাঠে বলের আঘাতে সদ্যপ্রয়াত ফিল হিউজেসের সঙ্গে একত্রে একই দলের হয়ে গত মৌসুমে বিগব্যাশ খেলেছেন সাকিব। অস্ট্রেলিয়ার এই তরুণ ক্রিকেটার আকস্মিক মৃত্যু সম্পর্কে সাকিব বলেছেন, ‘তাকে হারানোটা ক্রিকেট বিশ্বের জন্য অনেক বেশি বেদনার। এই দিনটার কথা কোনো কিছুতেই ভোলা যাবে না।’

শেয়ার করুন