নগরীতে শিশুকে হত্যার চেষ্টা মামলায় মহিলা গ্রেফতার

৩৪সিলেটের সকাল রিপোর্ট : সিলেট নগরীর সাদিপুর দ্বিতীয় খন্ডের নোয়াগাঁওয়ে দুই বছরের শিশু ইউনুসকে শ্বাসরুদ্ধে হত্যার চেষ্টা মামলায় এক মহিলাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতের নাম- নার্গিস বেগম (৩০)। সে কোতোয়ালী থানার সাদিপুর দ্বিতীয় খন্ডের নোয়াগাঁও গ্রামের দুলাল মিয়ার স্ত্রী। শুক্রবার রাতে কোতোয়ালী থানা পুলিশের একটি দল নিজবাড়ী থেকে নার্গিস বেগমকে গ্রেফতার করে।  শনিবার পুলিশ গ্রেফতারকৃত নার্গিসকে আদালতের মাধ্যমে জেলে প্রেরণ করেছে।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা গেছে, নগরীর সাদিপুর দ্বিতীয় খন্ডের নোয়াগাঁও গ্রামের মুছা মিয়ার স্ত্রী শাহানা বেগমের সাথে একই এলাকার দুলাল মিয়ার স্ত্রী নার্গিস বেগমদের সাথে মামলা-মোকদ্দমা চলে আসছিল। গত ২৬ নভেম্বর সকাল ৮ টার দিকে শাহানা বেগমের বাড়িতে প্রবেশ করে একই এলাকার হোসেন মিয়া, নার্গিস বেগম, মুন্না ফয়সল আহমদ ওরফে ভাগ্না ফয়সল ও জাবেদ মিলে মামলার জের ধরে তার শাহানাকে গালিগালাজ করতে থাকে।

এর প্রতিবাদ করলে শাহানা ও তার শিশু পুত্র ইউনুসকে বেদড়ক মারধর করে দুর্বৃত্তরা। এ পর্যায়ে দুর্বৃত্তরা ইউনুসকে শ্বাসরুদ্ধ করে মাটিতে ফেলে দিয়ে তার বুকের উপর পা দিয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়। এ সময় শিশুটি মারাত্মক জখম হয়ে রক্ত বমি করতে থাকে। শিশুর শোরচিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। পরে আহত শিশু ইউনুসকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৫ম তলার ২৩ নং ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। এখন সে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। এ ঘটনায় শাহানা বেগম বাদি হয়ে নার্গিস বেগমসহ ৬ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো ৩/৪ জনকে আসামী করে কোতোয়ালী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। নং- ১৫ (১২-১২-১৪)। এ মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ এজাহারনামীয় আসামী নার্গিস বেগমকে গ্রেফতার করে জেলে প্রেরণ করেছে।

শেয়ার করুন