দোয়ারাবাজারে পান খেয়ে ৬০ হাজার টাকা খোয়া গেল এক মহিলার

12দোয়ারাবাজার (সুনামগঞ্জ) থেকে মুহম্মদ তাজুল ইসলাম : সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে ছদ্মবেশি মহিলাদের আদর করে দেয়া পান খেয়ে ৬০ হাজার টাকা খোয়া গেল এক ভদ্র মহিলার। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার বিকালে। ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে সুরমা ইউনিয়নের টিলাগাঁও গ্রামের তাজুদ আলীর স্ত্রী সিতারা বেগম, শিমুলতলা গ্রামের ছিদ্দিকুর রহমানের স্ত্রী ফারজানা বেগম ও ছিদ্দিকুর রহমান নামের আরেক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

জানা যায়, উপজেলার পান্ডারগাঁও ইউনিয়নের আফছরনগর গ্রামের ফারুক মিয়ার স্ত্রী মুক্তা বেগম জমি রেজিস্ট্রী করতে ছাতকের লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট কোম্পানী সিএনজি স্ট্যান্ড থেকে দোয়ারাবাজারের উদ্দেশ্যে সিএনজিতে (ফোরস্ট্রোক) উঠেন। এসময় যাত্রীবেশী উপরোক্ত দুই মহিলাও তার পাশের সিটে আরোহন করেন। কিছুক্ষন পর তাদের একজন মুক্তা বেগমকে আদর করে পান খেতে দিলে সরল বিশ্বাসে সাদরে গ্রহন করে চিবুতে থাকেন তিনি। একপর্যায়ে তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন। পরে গাড়িটি দোয়ারাবাজার সাব-রেজিষ্ট্রার অফিসের সামনে পৌছামাত্র জ্ঞান ফিরে আসে ওই মহিলার। এসময় তার ভ্যানিটি ব্যাগটি কাটা দেখে বিচলিত হয়ে পড়েন তিনি। ব্যাগের ভেতরে রক্ষিত নগদ ৬০ হাজার টাকা, জাতীয় পরিচয়পত্রসহ তার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ওই মহিলারা হাতিয়ে নিয়েছে বলে তার সন্দেহ প্রকট হয়ে ওঠে।

তাৎক্ষণিক দোয়ারাবাজার থানায় খবর দিলে পুলিশ সন্দেহভাজন উপরোক্ত ওই দুই মহিলাসহ ওই যুবককে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে দোয়ারাবাজার থানার ওসি সেলিম নেয়াজ বলেন, আটককৃতদের  জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখে তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন