জাতীয় সংসদের হুইপের সাথে সিলেটের স্বাস্থ্যসহকারীদের মতবিনিময়

স্বাস্থ্যসহকারীদের টেকনিক্যাল পদমর্যাদাসহ বেতনস্কেল প্রদানের দাবিতে বাংলাদেশ হেল্থ এসিসট্যান্ট এসোসিয়েশন সিলেট বিভাগের নেতৃবৃন্দ জাতীয় সংসদের হুইপ শাহাবুদ্দিনের সাথে মতবিনিময় ও স্মারকলিপি প্রদান করেছেন।

সরকার দলীয় হুইপের বড়লেখাস্থ কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদান পরবর্তী মতবিনিময় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- এসোসিয়েশনের সিলেট বিভাগের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল আনসারী, সহ-সভাপতি সোহেল আহমদ, মিডিয়া ও যোগাযোগ সম্পাদক সরফ উদ্দিন, মৌলভীবাজার জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক লুৎফুর রহমান, দপ্তর সম্পাদক উপানন্দ বর্মন, সিলেট জেলা অর্থ সম্পাদক আব্দুস সবুর, বড়লেখা উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক বিকাশ রঞ্জন দাস, অর্থ সম্পাদক আলম হোসাইন, গীতা রাণী দাস, রীনা দে, ফাতেমা খামন, শংকর দে, দীপকংর দাস, তোফায়েল আহমদ প্রমুখ।

মতবিনিময় সভায় স্বাস্থ্য সহকারীরা দাবি করেন- তাদের কাজের জন্য বাংলাদেশ ইপিআই-তে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বারোটি দেশের মধ্যে প্রথম হয়েছে। বাংলাদেশকে পোলিওমুক্ত করা সম্ভব হয়েছে। স্বাস্থ্য খাতে জাতীয় পর্যায়ে আন্তর্জাতিক পরিমন্ডল হতে যতগুলো পুরস্কার এসেছে তা হচ্ছে- তৃণমূল পর্যায়ে স্বাস্থ্য সহকারীদের কাজের অবদানস্বরূপ। স্বাস্থ্য সহকারীরা দাবি করেন- তাদের কাজগুলো শতভাগ টেকনিক্যাল; অথচ তারা মর্যাদা ও সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত।

নেতৃবৃন্দ হুইপের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, ১৯৯৮ সালের ৬ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী স্বাস্থ্য সহকারীদের টেকনিক্যাল মর্যাদা প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতির দীর্ঘ ১৬ বছরে বাস্তবায়ন না হওয়ায় স্বাস্থ্য সহকারীরা হতাশ হচ্ছেন।

হুইপ শাহাবুদ্দিন দীর্ঘ সময় ধরে স্বাস্থ্য সহকারীদের বক্তব্য ধৈর্য্য সহকারে শুনেন। তিনি স্বাস্থ্য সহকারীদের কাজের পরিধি এবং জাতীয় পর্যায়ে অর্জিত অবদানের কথা স্বীকার করে মহান জাতীয় সংসদসহ সংশ্লিষ্ট মহলে বিষয়টি উপস্থাপনের আশ্বাস প্রদান করেন।

শেয়ার করুন