অবশেষে অর্থ প্রতিমিন্ত্রীর উপস্থিতিতে কানাইঘাট যুবলীগের সমাবেশ অনুষ্ঠিত

Picture 01

কানাইঘাট সংবাদদাতা :: কানাইঘাটে যুবলীগের সমাবেশকে কেন্দ্র করে মন্ত্রী এম.এ মান্নান এমপির আগমন উপলক্ষ্যে কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে অভ্যন্তরীন কোন্দল চলে আসছিল কয়েকদিন থেকে। অবশেষে শনিবার সমাবেশে যোগদেন তিনি।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী এম.এ মান্নান এমপি বলেছেন, ৫ জানুয়ারীর নির্বাচনে দেশের জনগণ আওয়ামীলীগকে ভোট দিয়ে পুনরায় নির্বাচিত করেছিল বিধায় বর্তমান সরকার তার কাজের ধারাবাহিকতার মাধ্যমে জনগণের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য কাজ করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের প্রতিটি সেক্টরে উন্নয়নের বিপ্লব সৃষ্টি হচ্ছে। অচীরেই মধ্যমায়ের দেশে পরিণত হবে আমাদের এই সোনার বাংলাদেশ। এই অগ্রযাত্রা কেউ ব্যাহত করতে পারবে না।

তিনি আরো বলেন, ৫ জানুয়ারীর নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খালেদা জিয়াকে বার বার নিমন্ত্রণ করার পরও তিনি নির্বাচনে আসেন নি। বর্তমান সরকার সাংবিধানিকভাবে নির্বাচিত এবং এ সরকারের উপর জনগণের আস্থা ও বিশ্বাস রয়েছে। বিএনপি নেত্রী যতই বিদেশীদের কাছে ধরনা দেন না কেনো, কোন ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত করে এ সরকারকে উৎখ্যাত করতে পারবেন না। খালেদা জিয়া জঙ্গীবাদীদের দূসর হয়ে দেশকে পাকিস্তান বানাতে চাচ্ছেন। এটা হতে দেওয়া হবে না।

এম.এ মান্নান এমপি শনিবার বিকেল ৩টায় আওয়ামী যুবলীগের ৪২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে কানাইঘাট উপজেলা যুবলীগের উদ্যোগে আয়োজিত স্থানীয় রামিজা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মাসুক আহমদের সভাপতিত্বে এবং যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ নাজিম উদ্দিন ও মীর মোহাম্মদ আব্দুল্লাহর যৌথ পরিচালনায় সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ, সিলেট-৫ আসনের সংসদ সদস্য জাপার কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব আলহাজ্ব মোঃ সেলিম উদ্দিন, জেলা যুবলীগের সভাপতি শামীম আহমদ, সাধারণ সম্পাদক মহসিন কামরান, সহসভাপতি অধ্যাপক আবু তাহের, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, জেলা যুবলীগ নেতা জাহিদ সারোয়ার সবুজ, গোলাম মাওলা চৌধুরী, মাশুক আশিক, মাসুক মিয়া, সজলু লস্কর, রেজাউল করিম রেজা, জহাঙ্গীর আলম, শাহীন চৌধুরী, সুহেল কর্ণেল, শাহীন আহমদ, দুলন আহমদ, জসিম, ওলিউর রহমান ওলি, ফজলুর রহমান ।

বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শ্রী রিংকু চক্রবর্তী, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শাহাব উদ্দিন, জৈন্তাপুর উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক প্রভাষক সাহেদ আহমদ, উপজেলা যুবলীগ নেতা শফিউল আলম শামীম, শাহেদ আহমদ, ইয়াহিয়া, মাহবুবুর রহমান চুন্নু, রইছ উদ্দিন, খোর্শেদ আলম, হারিছ উদ্দিন, জেলা তরুণলীগ নেতা জমির উদ্দিন কামরান, মহানগর ছাত্রলীগ নেতা মামুন রশিদ রাজু, সিলেট ল’ কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মস্তাক আহমদ, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক ঐক্যজোটের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক বিকাশ দাস, যুগ্ম আহ্বায়ক শহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ কানাইঘাট-দরবস্ত সড়কের বেহালদশা উল্লেখ করে তা জরুরী ভিত্তিতে  কাজ করার জন্য মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করলে তিনি বলেন, আমি আজ সড়ক পথ দিয়ে এই রাস্তা দিয়ে সমাবেশ এসেছি। রাস্তার করুণদশা প্রত্যক্ষ করলাম, এ বাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সড়ক ও সেঁতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সাথে কথা বলব। এছাড়া তিনি কানাইঘাট উপজেলার রাস্তা-ঘাট, শিক্ষ-প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নের ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বললেবন বলে আশ্বস্থ করেন।

যুবলীগের সমাবেশকে কেন্দ্র করে মন্ত্রী এম.এ মান্নান এমপির আগমন উপলক্ষ্যে কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে অভ্যন্তরীন কোন্দলের জের ধরে সমাবেশে জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগের কোন শীর্ষ পর্যায়ে দায়িত্বশীল নেতারা সমাবেশে আসেন নি। দলের বড় অংশের নেতাকর্মীরা সমাবেশে বয়কট করেন।

শেয়ার করুন